ঢাকা, মঙ্গলবার 12 November 2019, ২৮ কার্তিক ১৪২৬, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

নাসিরনগরের ঘটনায় গ্রেপ্তার আরও ৯

অনলাইন ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে পুলিশের বিশেষ অভিযান অব্যাহত রয়েছে। হিন্দু এলাকায় সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে গতকাল শনিবার রাত থেকে আজ রোববার সকাল পর্যন্ত আরও নয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ৩০ অক্টোবরের হামলার ভিডিও ফুটেজ দেখে ও আগের আটক ব্যক্তিদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

গত ৩০ অক্টোবরের (রোববার) হামলার ঘটনায় করা দুটি মামলায় গত শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে গতকাল শনিবার ভোর পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে যুবদলের এক নেতাসহ ৩৩ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর আগে কয়েক দফায় ১১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। আজকের পর গ্রেপ্তারের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৩।

নাসিরনগর থানার নতুন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জাফর বিষয়টি জানিয়েছেন।

গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও যুবলীগের সভাপতি অঞ্জন কুমার দেবের বাড়িতে অগ্নিসংযোগের চেষ্টা করা হলে নাসিরনগরে নতুন করে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে।

উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন স্থানে পুলিশ, র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটায়িন (র‍্যাব), বর্ডার গার্ড বাংলাদেশসহ (বিজিবি)আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর ৫০০ সদস্য মোতায়েন রয়েছে।

সৃষ্ট পরিস্থিতি নিয়ে আজ রোববার দুপুরে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মোহাম্মদ ছায়েদুল হক স্থানীয় ডাক বাংলোতে সাংবাদিক সম্মেলন করবেন। এ ছাড়া কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দীকি আজ দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করবেন।

ফেসবুকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার অভিযোগকে কেন্দ্র করে নাসিরনগরের প্রায় ১৫টি মন্দির ও শতাধিক হিন্দু বাড়িতে হামলা করা হয় ৩০ অক্টোবর। এর পাঁচ দিন পর বৃহস্পতিবার উপজেলা সদরে হিন্দু সম্প্রদায়ের পাঁচটি ঘর ও একটি মন্দিরে অগ্নিসংযোগ করে দুর্বৃত্তরা। প্রথম হামলার ঘটনায় নাসিরনগর থানায় অজ্ঞাতনামা ২ হাজার ৪০০ জনকে আসামি করে দুটি মামলা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ