ঢাকা, সোমবার 07 November 2016 ২৩ কার্তিক ১৪২৩, ৬ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সুন্দরবন রক্ষার্থে কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র বন্ধ করতে হবে -চরমোনাই পীর

খুলনা অফিস : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর ও চরমোনাই পীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম সুন্দরবন বাঁচাতে এবং এ অঞ্চলের পরিবেশ রক্ষার্থে রামপালের কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র বন্ধের দাবি জানিয়েছেন। এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাস্তবায়িত হলে জীববৈচিত্র্যসহ পরিবেশ ধ্বংস হবে। ভারতে কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাস্তবায়ন করতে পারেনি। বাংলাদেশে সুন্দরবনকে ধংস করে বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাস্তবায়ন করতে দেয়া হবে না। রোববার বিকেলে জাতীয় শিক্ষানীতিমালা-২০১০ ও প্রস্তাবিত শিক্ষা আইন-২০১৬ বাতিল, কওমি মাদরাসার স্বীকৃতি, সারাদেশে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধের দাবি এবং দেশ, জাতি, মানবতা ও ইসলামী শাসনতন্ত্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে খুলনার ফেরীঘাট চত্বরে ইসলামী আন্দোলনের খুলনা জেলা ও নগর শাখা যৌথ উদ্যোগে বিভাগীয় সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। তিনি বিতর্কিত সিলেবাস অনুযায়ী শিক্ষানীতির আলোকে প্রণীত পাঠ্য পুস্তক বাতিল করার দাবি করেছেন। তিনি বলেন, ইসলামী শিক্ষার মাধ্যমে জঙ্গিবাদ তৈরি হয়না। ইসলামী শিক্ষা আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলে। তিনি আলেমদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি না করে কওমী মাদরাসার স্বীকৃতি প্রদানের দাবি তোলেন। ২০১৭ সালের পাঠ্য পুস্তকে হিন্দুত্ববাদী ও নাস্তিকতাবাদী গল্প-প্রবন্ধ থাকলে তা ধংস করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। ৯০ ভাগ মুসলমানের দেশে ইসলামী সাংস্কৃতির আলোকে পাঠ্য পুস্তক প্রণয়নের দাবি তোলেন তিনি।
মহানগরী আমীর মাওলানা মুজাম্মিল হকের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রেসিডিয়াম সদস্য মাওলানা নূরুল হুদা ফায়েজী, স্থানীয় আলেম মুফতী মাওলানা মুশতাক আহমেদ, মহাসচিব হাফেজ মাওলানা অধ্যক্ষ ইউনুস আহমেদ, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলনের সভাপতি অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, সহকারী মহাসচীব মাওলানা আব্দুল কাদের, যশোর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. মহসীন আলম, যুব আন্দোলনের মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মামুন, খুলনা জেলা সভাপতি মাওলানা আব্দুল্লাহ ইমরান, ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুর হোসেন, সাতক্ষীরা জেলা শাখার সভাপতি মাওলানা রেজাউল করিম প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ