ঢাকা, শুক্রবার 19 April 2019, ৬ বৈশাখ ১৪২৬, ১২ শাবান ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ দাবিতে দক্ষিণ কোরিয়ায় ১০ লাখ মানুষের বিক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক: দক্ষিণ কোরিয়ায় প্রেসিডেন্ট পার্ক জিউন হাইয়ের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন ১০ লাখের বেশি মানুষ। দক্ষিণ  কোরিয়ার ৩০ বছরের ইতিহাসে এর আগে এত বড় সমাবেশ আর কখনো ঘটেনি।

প্রেসিডেন্ট পার্কের পদত্যাগের দাবীতে ধারাবাহিক আন্দোলনের অংশ হিসেবে গত শনিবার রাজধানী সিউলে এই বিশাল বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। 

তারা রাষ্ট্রপতির বাস ভবনের দিকে এগিয়ে যান এবং পার্কের  জোর পদত্যাগ দাবি করেন।

পার্কের বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি চোউ সুন সিল নামের এক নারীকে দিয়ে অবৈধভাবে রাষ্ট্রীয় কাজে হস্তক্ষেপ করিয়েছেন। রাষ্ট্রীয় কাজে অনুমতি না দিয়ে ওই নারীকে বিভিন্ন সরকারি দফতরে প্রবেশের ক্ষমতা দিয়েছিলেন তিনি। এতে দেশটির আইন লঙ্ঘন হয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রথম কয়েক মাসে নিজের রাজনৈতিক বক্তৃতা বন্ধু চাওই সুন-সিলকে দিয়ে লেখাতেন পার্ক।  যদিও চাওই সরকারি কোনো পদে দায়িত্বরত নন। গত সপ্তাহে প্রেসিডেন্ট কার্যালয়ের কর্মকর্তারা এ কথা স্বীকার করে নেয়ার পর নিজের জ্যেষ্ঠ ১০ উপদেষ্টাকে পদত্যাগের নির্দেশ দেন পার্ক।

তারপরও জনগণের বিশ্বাস ভঙ্গের এবং সরকার ব্যবস্থাকে বিশৃঙ্খল করার অভিযোগ তুলে পার্কের পদত্যাগের দাবিতে রাজধানী সিউলে বিক্ষোভ অব্যাহত থাকে।

পার্কের গুরুকন্যা চোই সুন লি এই মুহূর্তে দক্ষিণ কোরিয়া পুলিশের হাতে বন্দি। তার বিরুদ্ধে প্রতারণা ও জাল জালিয়াতির অভিযোগ আনা হয়েছে। বিভিন্ন কর্পোরেট কোম্পানি থেকে মোটা অঙ্কের অর্থ নেওয়ার অভিযোগও আছে তার বিরুদ্ধে। আর এসব কাজ করার জন্য প্রেসিডেন্ট পার্ক তাকে সহায়তা করেন।

২০১২ সালে নির্বাচিত হয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন পার্ক। আগামী বছর দক্ষিণ কোরিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। ক্ষমতায় থেকে নানা কেলেঙ্কারিতে জড়িয়েছেন প্রেসিডেন্ট। এজন্য পদত্যাগ ছাড়া অন্য কোনো দাবি নেই আন্দোলনকারীদের।

জিও নিউজ সূত্র মতে সিউলে আশেপাশের রাজ্যের জনগণও এ বিক্ষোভ সমাবেশে অংশ নিচ্ছেন। সরকারও অবস্থার ব্যাপকতা বিবেচনা করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ রাখতে ২৫ হাজার পুলিশ নিয়োজিত রেখেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ