ঢাকা, সোমবার 14 November 2016 ৩০ কার্তিক ১৪২৩, ১৩ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বিদ্বেষে উসকানি : ডেইলি মেইলকে লেগোর বিজ্ঞাপন বন্ধ

অভিবাসীদের নিয়ে বিদ্বেষ ছড়ানো সংবাদপত্রগুলোতে বিজ্ঞাপন না দেয়ার আহ্বান জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি প্রচারণার প্রেক্ষাপটে যুক্তরাজ্যের ডানপন্থি পত্রিকা ডেইলি মেইলে নিজেদের পণ্যের বিজ্ঞাপন বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে খ্যাতনামা খেলনা প্রস্তুতকারী কোম্পানি লেগো।
গত শনিবার বিবিসির একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, পত্রিকাটির মাধ্যমে নিয়মিত বিনামূল্যে শিশুদের খেলনা দিত ডেনিশ কোম্পানিটি। এখন তারা বলছে, ‘অদূর ভবিষ্যতে’ আর তা হবে না। ডেইলি মেইলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্নের কারণ বলেনি লেগো। তবে কোম্পানির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, অভিভাবকদের কথায় গুরুত্ব দিচ্ছেন তারা।
‘স্টপ ফান্ডিং হেইট’ নামের একটি গ্রুপ কয়েকটি পত্রিকাকে বিজ্ঞাপন না দিতে প্রচার চালায়।
অভিবাসীদের নেতিবাচকভাবে উপস্থাপন এবং ব্রেক্সিট নিয়ে গণভোটের আগে ও পরে বিদ্বেষ উসকে দেয়ায় যুক্তরাজ্যের বেশ কয়েকটি পত্রিকার সমালোচনা করে তারা।
মার্ক অ্যান্ড স্পেনসার ও ওয়েট্রোজসহ অনেক কোম্পানির প্রতি ডেইলি মেইল, দ্য সান ও ডেইলি এক্সপ্রেসকে বিজ্ঞাপন দেয়া বন্ধের আহ্বান জানায় তারা। ‘স্টপ ফান্ডিং হেইট’র একটি টুইটে সাড়া দিয়ে লেগো ডেইলি মেইলের সঙ্গে তাদের ‘প্রমোশনাল এগ্রিমেন্ট’ শেষ করার কথা নিশ্চিত করেছে।
একজন মুখপাত্র বলেছেন, “তৃতীয় পক্ষের সঙ্গে কী কথা হয়েছে সে বিষয়ে আমরা কোনো মন্তব্য করব না।
“আমরা নিশ্চিত করছি যে, ডেইলি মেইলের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক শেষ হয়েছে এবং ভবিষ্যতে প্রমোশনের কোনো পরিকল্পনা নেই।” লেগোর পক্ষ থেকে বিবিসিকে বলা হয়, শিশুদের ভাবনা জানতে তারা অনেক সময় ব্যয় করেছেন।
“যখন বাবা-মা ও দাদা-দাদি তাদের ভাবনা সম্পর্কে আমাদের জানান, তখন খুব গুরুত্বের সঙ্গে তা আমরা শুনি।” লেগোর সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ার বিষয়টি ডেইলি মেইলও নিশ্চিত করেছে।
ব্রেক্সিট শুরুর আগে যুক্তরাজ্য সরকারকে পার্লামেন্টের অনুমোদন নিতে হবে বলে হাই কোর্ট রায় দেয়ার পর বিচারকদের নিয়ে এই শিরোনাম করে সমালোচিত হয় ডেইলি মেইল।
লেগোর ডেইলি মেইল প্রমোশনের আওতায় পাঠকদের একটি কুপন দেয়া হত, যা দেখিয়ে কোম্পানির পণ্যের খুচরা বিক্রেতার কাছ থেকে বিনামূল্যে খেলনা নেয়া যেত। ২০১৩ সাল থেকে পত্রিকাটিতে এ প্রমোশন চালিয়ে আসছিল লেগো। তার আগে দ্য সানের সঙ্গে তাদের এ সম্পর্ক ছিল।
যুক্তরাজ্যের দ্বিতীয় সর্বাধিক পঠিত দৈনিক ডেইলি মেইল। পত্রিকাটির অনলাইন সংস্করণে প্রতিদিন চোখ বোলান দেড় কোটি পাঠক, এ সংখ্যা যে কোনো ব্রিটিশ পত্রিকার অনলাইন পাঠক সংখ্যার চেয়ে বেশি।
ডেইলে মেইলে বিজ্ঞাপন দেয়ার সমালোচনা করে লেগোকে লেখা একজন ব্রিটিশ অভিভাবকের একটি চিঠি গত সপ্তাহে অনলাইনে ছড়িয়ে পড়ে।
ডেইলি মেইল ‘অনেক দূর গিয়েছে’ এবং তাদের সঙ্গে লেগোর সম্পর্ক চালিয়ে যাওয়াকে ‘ভুল’ মনে করেন বলে চিঠিতে লেখেন বব জনস। যুক্তরাজ্যের ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়া (ব্রেক্সিট) শুরুর আগে অবশ্যই পার্লামেন্টে ভোটের মাধ্যমে অনুমোদন নিতে হবে বলে সম্প্রতি হাই কোর্টের এক রায়ে বলা হয়।
এতে বিচারকদের ‘জনগণের শত্রু’ হিসেবে আখ্যায়িত করে ডেইলি মেইল, যা নিয়ে তুমুল সমালোচনা হয়।
- বিডিনিউজ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ