ঢাকা, শনিবার 19 November 2016 ৫ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ১৮ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বাংলাদেশে কলেজ পর্যায়ে শিক্ষার উন্নয়নে সহযোগিতা করবে মালয়েশিয়া

গাজীপুর সংবাদদাতা : বাংলাদেশে কলেজ পর্যায়ে শিক্ষার উন্নয়নে যৌথভাবে কাজ করবে মালয়েশিয়া। এ লক্ষ্যে দেশটির সঙ্গে পার্টনারশিপ এগ্রিমেন্ট স্বাক্ষর হয়েছে। বৃহস্পতিবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ইউনিভার্সিটি অব নটিংহাম মালয়েশিয়া ক্যাম্পাস (ইউএনএমসি) এবং বাংলাদেশের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে বুধবার মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে একটি পার্টনারশিপ এগ্রিমেন্ট (পিএ) স্বাক্ষরিত হয়েছে। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ উপস্থিত ছিলেন। কলেজ পর্যায়ে উচ্চ শিক্ষার মানোন্নয়নের লক্ষ্যে এই পিএ স্বাক্ষরিত হলো। বাংলাদেশ কলেজ অ্যাডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট (সিইডিপি)-এর মাধ্যমে এ চুক্তি বাস্তবায়িত হবে।

বাংলাদেশের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশীদ, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. এমএ মাননান, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. হেলাল উদ্দিন এবং জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমির (নায়েম) মহাপরিচালক মো. হামিদুল হক। ইউএনএমসির পক্ষে এর প্রভোস্ট ও সিইও প্রফেসর ড. গ্রাহাম কেন্ডাল চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

এ চুক্তির আওতায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি), বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, নায়েম এবং ইউএনএমসি একটি ট্রেনিং কনসোর্টিয়াম হিসেবে কাজ করবে। সিইডিপি প্রকল্পের অধীনে বাংলাদেশের কলেজগুলোতে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে টিচিং ও ম্যানেজমেন্ট ক্যাপাসিটি শক্তিশালী করার লক্ষ্যে এ কনসোর্টিয়াম কাজ করবে। এ পার্টনারশিপ চুক্তি স্বাক্ষরের ফলে সিইডিপি প্রকল্পের আওতায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রি প্রদানকারী ৭০০ কলেজের সাত হাজার শিক্ষক, ৩০০ মাস্টার ট্রেইনার, ৭০০ জন অধ্যক্ষ, ৫০০ একাডেমিক স্টাফ এবং ৭৫ জন নীতিনির্ধারকসহ মোট আট হাজার ৫৭৫ জনকে দেশে ও বিদেশে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। ইউনিভার্সিটি অব নটিংহাম মালয়েশিয়া ক্যাম্পাস (ইউএনএমসি) এ প্রশিক্ষণ দেবে। সিইডিপি প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ১৩০ মিলিয়ন ডলার। এর মধ্যে বিশ্বব্যাংক ১০০ মিলিয়ন ডলার এবং বাংলাদেশ সরকার ৩০ মিলিয়ন ডলার দেবে। প্রকল্পের মেয়াদকাল ২০১৬ থেকে ২০২১ সাল। বাংলাদেশের কলেজ শিক্ষক ও অধ্যক্ষদের পেশাগত দক্ষতা এবং আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সরকার এ প্রকল্প গ্রহণ করেছে।  এদিকে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বুধবার মালয়েশিযার রাজধানী পুত্রজায়ায় সে দেশের উচ্চশিক্ষা মন্ত্রী দ্যাতো সেরি ইদ্রিস জুশোর সঙ্গে তার কার্যালয়ে বৈঠক করেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো. শহিদুর ইসলাম, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. হারুন-অর-রশিদ, ইউনিভার্সিটি অব নটিংহামের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর স্যার ডেভিড গ্রিনওয়ে প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ