ঢাকা, রোববার 20 November 2016 ৬ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ১৯ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

নোবেল পুরস্কারের কথা

আহসান হাবিব বুলবুল : তোমরা নিশ্চয়ই জেনে থাকবে নোবেল পুরস্কার-২০১৬ ঘোষণা করা হয়েছে। এসো এই পুরস্কারের ইতিবৃত্ত নিয়ে কথা বলি: আলফ্রেড নোবেল এর নামে এই পুরস্কার দেয়া হয়। তিনি ১৮৩৩ সালে সুইডেনের স্টকহোমে একটি প্রকৌশল পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন, একাধারে রসায়নবিদ, প্রকৌশলী ও একজন উদ্ভাবক। তিনি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত ৩৫৫টি উদ্ভাবনা করেন। যার মাধ্যমে তিনি জীবদ্দশায় প্রচুর ধন সম্পদের মালিক হন।
এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য উদ্ভাবন ছিল ডিনামাইট। এই ডিনামাইট ব্যবহারের ফলে ১৮৮৮ সালে ব্যাপক প্রাণহানি ঘটে। তিনি মৃতদের তালিকা দেখে কষ্ট পান। পরবর্তীতে তিনি তার অর্জিত সব সম্পদ দিয়ে বোবেল পুরস্কার প্রবর্তন করেন। ১৮৯৫ সালের নবেম্বর মাসে আলফ্রেড নোবেল তার মোট উপার্জনের শতকরা ৯৪ ভাগ অর্থ প্রায় তিন কোটি সুইডিশ ক্রোনার দিয়ে উইলের মাধ্যমে নোবেল পুরস্কার প্রবর্তন করেন। ১৮৯৬ সালে ১০ ডিসেম্বর ইতালিতে পুরস্কার ঘোষণার আগেই তিনি মৃত্যুবরণ করেন।
আইন সভার অনুমোদন শেষে তার উইল অনুযায়ী নোবেল ফাউন্ডেশন গঠিত ফাউন্ডেশনের ওপর দায়িত্ব বর্তায় আলফ্রেড নোবেলের রেখে যাওয়া অর্থের সাবির্ক তত্ত্বাবধায়ন করা। এবং নোবেল পুরস্কারের সার্বিক ব্যবস্থাপনা করা। বিজয়ী নির্বাচনের দায়িত্ব সুইডিশ একাডেমি আর নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটিকে ভাগ করে দেয়া হয়। প্রথমে পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন চিকিৎসা বিজ্ঞান, সাহিত্য ও শান্তিতে নোবেল পুরস্কার প্রদান করা হয়। পরে ১৯৬৮ সালে এই তালিকায় যুক্ত হয় অর্থনীতি।
আলফ্রেড নোবেলের মৃত্যু দিবস ১০ ডিসেম্বর নরওয়ের অসলোতে শান্তি পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। আর অন্যান্য পুরস্কারগুলোও একই দিনে সুইডেনের স্টকহোমে বিজয়ীদের হাতে তুলে দেয়া হয়। শান্তিতে পুরস্কার ঘোষণা করে নোবেল কমিটি অব নরওয়েজিয়ান পার্লামেন্ট। পদার্থ, রসায়ন ও অর্থনীতিতে পুরস্কার ঘোষণা করে রয়্যাল সুইডিশ একাডেমিক অব সায়েন্স। সাহিত্যে পুরস্কার ঘোষণা করে সুইডিশ একাডেমি এবং চিকিৎসা বিজ্ঞানে ক্যারেলিনস্কা ইনস্টিটিউট।
প্রতিটি ক্ষেত্রে অবদানের জন্য পুরস্কারের মূল্যমান হলো, এক কোটি ক্রোনার বা ১৪ লাখ ২০ হাজার ডলার। আরও কিছু তথ্য জানাই তোমাদের।
* ১৯১৩ সালে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এশিয়া তথা উপমহাদেশের মধ্যে প্রথম নোবেল বিজয়ী হন। তিনি সাহিত্যে তার গীতাঞ্জলী কাব্যের জন্য এই পুরস্কার পান।
* ১৯৭৮ সালে মিসরের প্রেসিডেন্ট আনোয়ার সা’দাত প্রথম মুসলমান হিসেবে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পান।
* প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ২০০৬ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পান ড. মুহাম্মদ ইউনূস। এ বছর ২০১৬ সালে যারা নোবেল পুরস্কার পেলেন: অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য নোবেল পুরস্কার জিতে নিয়েছেন, দুই মার্কিন অর্থনীতিবিদ। তাদের একজন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত অর্থনীতিবিদ অলিবারহার্ট এবং আরেকজন ফিনল্যান্ডে জন্ম নেয়া ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতিবিদ বেঙ্কট হোমস্ট্রর্ম।
এ বছর নোবেল শান্তি পুরস্কার জিতে নেন কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট হুয়ান ম্যানুয়েল সান্তোস।
এ বছর পদার্থ বিজ্ঞানে অবদানের জন্য তিন ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত মার্কিন বিজ্ঞানী বিজয়ী হন। তারা হলেন, ডেভিড জে থুলেস, এ ডানকান এম হালডেন এবং জে মাইকেল কোস্টারলিটজ।
চিকিৎসাশাস্ত্রে এবার নোবেল পেয়েছেন, ইয়োশিনোরি ওশুমি। তিনি জাপানের টোকিও ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির অধ্যাপক।
এ বছর রসায়ন শাস্ত্রে নোবেল পেয়েছেন, তিন বিজ্ঞানী ফ্রান্সের জ্যাঁ পিয়েরে সাভেজ, যুক্তরাজ্যের স্যার জেফ্রেজার স্টোডার্ট এবং নেদার ল্যান্ডসের বার্নার্ড এল ফেরিঙ্গা।
সাহিত্যে এ বছর নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন, মার্কিন গায়ক ও গীতিকার বব ডিলান। তার আসল নাম রবার্ট অ্যালেন জিমারম্যান। এই স্বল্প পরিসরে তাদের সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরা গেল না। তোমরা ভবিষ্যতে লেখাপড়ার মাধ্যমে আরও অনেক জানতে পারবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ