ঢাকা, রোববার 20 November 2016 ৬ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ১৯ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

আধিপত্যবাদ বিরোধী কিংবদন্তি মুসলিম লীগ নেতা এম. এ. সালাম

ইসলামের শাশ্বত জীবন বিধান, মানবিক মূল্যবোধ আর গণতান্ত্রিক সমাজ বিনির্মাণে এম. এ. সালাম আমৃত্যু সংগ্রাম করে গেছেন। আদর্শ বিসর্জন দিয়ে ক্ষমতার মোহ এম. এ. সালামকে কোনোদিনই পথভ্রষ্ট করতে পারেনি। বলেছেন বাংলাদেশ মুসলিম লীগের মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের। বাংলাদেশ মুসলিম লীগের সাবেক সভাপতি, চট্টগাম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্ব এম. এ. সালামের ১৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ মুসলিম লীগ ও এম. এ. সালাম স্মৃতি সংসদের যৌথ উদ্যোগে গত শুক্রবার বাদ জুমা নয়াপল্টনস্থ মুসলিম লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয় দলীয় নির্বাহী সভাপতি আব্দুল আজিজ হাওলাদারের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন মুসলিম লীগের সিনিয়র প্রেসিডিয়াম সদস্য আতিকুল ইসলাম, প্রধান বক্তা ছিলেন দলীয় মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের, বক্তব্য রাখেন স্থায়ী কমিটির সদস্য নবী চৌধুরী, আনোয়ার হোসেন, আবুড়ী, অতি-মহাসচিব আকবর হোসেন পাঠান, মো. কুদরত উল্যাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট হাবিবুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক খন্দকার জিল্লুর রহমান। নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, মরহুম এম. এ. সালাম সারা জীবন মুসলিম লীগের আদর্শ লালন করে গেছেন। তিনি সারা জীবন আধিপত্যবাদী শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করে গেছেন। তিনি ছিলেন বড় হৃদয়ের মানুষ। অকাতরে দান করেছেন গরিব মানুষদের, প্রতিষ্ঠা করে গেছেন বহু স্কুল, কলেজ, মসজিদ, মাদরাসা ও বিশ্ববিদ্যালয়। অলোচনা শেষে মরহুমের রূহের মাগফিরাত কামনা করে মহান আল্লাহর দরবারে মুনাজাত করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ