ঢাকা, সোমবার 21 November 2016 ৭ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ২০ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মওলানা ভাসানী ছিলেন স্বাধীনতার প্রথম স্বপ্নদ্রষ্টা

আফ্রো-এশিয়া-লাতিন আমেরিকার গণমানুষের মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক সংস্থা তমদ্দুন মজলিস উদ্যোগে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তাগণ বলেছেন, ক্ষমতার জন্য নয় নির্যাতিত মানুষের মুক্তিই ছিল মওলানা ভাসানীর জীবনের লক্ষ্য। এদিক দিয়ে এ দেশের রাজনৈতিক ক্ষেত্রে তিনি ছিলেন একমাত্র সম্মানজনক ব্যতিক্রম। বক্তাগণ আরও বলেন, শোষিত-নির্যাতিত মানুষের মুক্তির আদর্শ তিনি খুঁজে পেয়েছিলেন ইসলামের মধ্যে। তবে ধর্মের নাম ভাঙ্গিয়ে রাজনীতি করার যে প্রবণতা অনেক দলের মধ্যে দেখা যায়, তিনি ছিলেন তার অনেক ঊর্ধ্বে। উপমহাদেশের বৃটিশ বিরোধী মুক্তি সংগ্রামে তার ছিল ঐতিহাসিক ভূমিকা। বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্বপ্নদ্রষ্টা ছিলেন মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী। তিনি যেমন সাম্রাজ্যবাদ, আধিপত্যবাদের প্রভুত্বের সামনে কখনও নতি স্বীকার করেননি, তেমনি কোন সরকারের শোষণ ও কুশাসনের বিরুদ্ধে আপোষহীন সংগ্রামেও তিনি কখনও বিরতি দেননি। এ কারণেই তার জীবনের সিংহভাগ কেটেছে জেলে জেলে। ইসলামের বিপ্লবী শিক্ষার ভিত্তিতে সমাজ নির্মাণের লক্ষ্যে তিনি জীবনের শেষ প্রান্তে এসে সন্তোষে একটি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করেন। বার্ধক্যজনিত অসুস্থতা নিয়ে মৃত্যুর অল্প দিন আগে ফারাক্কা লংমার্চ করে তিনি তার দেশপ্রেম ও আধিপত্যবাদ বিরোধী সংগ্রামের অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করে যান।

বক্তারা বলেন, দেশ আজ যেভাবে নানা সংকটে বিপন্ন এ অবস্থায় একমাত্র মওলানা ভাসানীর দৃষ্টান্ত অনুসরণের মাধ্যমেই জাতির মুক্তি ও অগ্রগতির নিশ্চয়তা বিধান করতে পারি। গতকাল তমদ্দুন মজলিসের মালিবাগস্থ মহানগর অফিস মিলনায়তনে বিশিষ্ট গবেষণা ড. মুহাম্মাদ সিদ্দিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ‘শোষণ-নির্যাতনের বিরুদ্ধে মওলানা ভাসানীর সংগ্রাম’ শীর্ষক এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ভাষা সৈনিক ও প্রবীণ সাংবাদিক অধ্যাপক আবদুল গফুর। এ ছাড়াও আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন অধ্যাপক হাসান আবদুল কাইয়ুম, অধ্যাপক ফরিদউদ্দিন খান, আবদুল আউয়াল ঠাকুর, মোহাম্মদ শাহাবুদ্দীন খান, মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, সাবেক ভিসি মুহাম্মদ হামিদুর রহমান, এরতাজ আলম, শওকত আজীজ প্রমুখ। সংশ্লিষ্ট বিষয়ের উপর প্রবন্ধ পাঠ করেন মুহাম্মদ তাওহিদ খান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ