ঢাকা, সোমবার 21 November 2016 ৭ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ২০ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রামেক হাসপাতালে অব্যবস্থা ও দুর্নীতি বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ

রাজশাহী অফিস : রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসকদের কর্তব্যে অবহেলা ও রোগীদের সঙ্গে প্রতিনিয়ত ইন্টার্ণ চিকিৎসকদের দুর্ব্যবহারের প্রতিবাদে রাজশাহীতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছে সামাজিক সংগঠন রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদ। গতকাল রোববার সকালে নগরীর অলকার মোড় থেকে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে নগরীর সাহেব বাজার জিরো পয়েন্টে প্রতিবাদ সভায় মিলিত হয়। সভা থেকে বক্তারা হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, চিকিৎসার নামে চিকিৎসকদের দুব্যর্বহার, ভুল চিকিৎসা ও চিকিৎসার নামে বাণিজ্য বন্ধ করা না হলে অচিরেই বৃৃহত্তর আন্দোলন সংগ্রাম গড়ে তোলা হবে। প্রয়োজনে হাসপাতাল ঘেরাও করারও ঘোষণা দেয়া হয়। একই প্রতিবাদ সভা থেকে ইন্টার্নী চিকিৎসকদের বর্তমান সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড বন্ধের দাবি, রোগীর স্বজনদের ওপর চিকিৎসকদের সশস্ত্র হামলা, বিনা কারণে রোগীর স্বজনদের গ্রেফতার করে পুলিশে সোপর্দ ও হয়রানী বন্ধের অহ্বান জানিয়ে রোগীর প্রতি সহনশীল আচরণ করার দাবি জানানো হয়। প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, হাসপাতালের অব্যবস্থাপনা, খাদ্যে দুর্নীতি, ওষুধ চুরি, নার্স কর্মচারীদের অশুভ আচরণ ও দোষী ইন্টার্নী চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে বৃহত্তর আন্দোলন সংগ্রাম গড়ে তোলা হবে। প্রতিবাদ সমাবেশে সম্প্রতি ইন্টার্নী চিকিৎসকদের হাতে হামলার শিকার জেলার পবা উপজেলার মদনহাটি গ্রামের স্বামীহারা গৃহবধূ রাহেমা ও তার ছেলেরাও প্রতিবাদ সমাবেশ অংশ নিয়ে হামলাকারী ইন্টার্নী চিকিৎসকদের বিচার দাবি করেন।

রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সহ সভাপতি ও রাজশাহী চেম্বারের পরিচালক হারুনুর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. জামাত খান, সাংগাঠনিক সম্পাদক দেবাশিষ প্রামাণিক দেবু, মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান আলী বরজাহান, আইনজীবী সমিতির নেতা অ্যাড. এন্তাজুল হক বাবু, রেস্তোরাঁ মালিক সমিতির সভাপতি রিয়াজ আহমেদ খান, মিনহাজ উদ্দিন মিন্টু, পবা উপজেলা জাপার সভাপতি আব্দুল মালেক, অধ্যাপক জিএম হারুন, নারী উদ্যোক্তা উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ডা. সেলিনা খাতুন, রাজশাহী মহিলা চেম্বারের সহসভাপতি সাগরিকা, সাংবাদিক আফরোজা খানম হেলেন, মানবাধিকার কর্মী আইয়ুব আলী তালুকদার, জেলা লোকমোর্চার সাধারণ সম্পাদক বেলাল আহমেদ, পরিবেশক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন, সম্প্রতি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাসেবায় চরম অব্যবস্থাপনা দেখা দিয়েছে। ভুল চিকিৎসায় অহরহ রোগী মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। রোগীর স্বজনরা প্রতিবাদ করলেই ইন্টার্নী চিকিৎসকরা অস্ত্র ও লাঠিসোঁটা নিয়ে রোগীর সেবা ত্যাগ করে স্বজনদের ওপর হামলা চালাচ্ছে। গত এক সপ্তাহে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ ধরনের ইন্টার্নী চিকিৎসকদের হামলায় অন্তত ১০ জন জখম হয়েছে। স্বামী মৃত্যুর প্রতিবাদ করায় বৃদ্ধ নারীর ওপর হামলাও চালিয়েছে তারা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ