ঢাকা, সোমবার 21 November 2016 ৭ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ২০ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

কেয়ারটেকার সরকারের অধীনেই অবাধ নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব

কেন্দ্র ঘোষিত ২০ নবেম্বর কেয়ারটেকার সরকার দাবি দিবসে চট্টগ্রাম নগর জামায়াত আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও সাবেক এমপি মাওলানা আ. ন. ম. শামসুল ইসলাম

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও সাবেক এমপি মাওলানা আ. ন. ম. শামসুল ইসলাম বলেছেন, আওয়ামী লীগ কেয়ারটেকার সরকার আইন বাতিল করার কারণেই আজ জনগণ ভোটাধিকার হারিয়েছে। দেশে ১৯৯১, ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে কেয়ারটেকার সরকারের অধীনে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অবাধ, নিরপেক্ষ এবং সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব হয়েছিল। বর্তমান সরকার শুধু জনগণের ভোটাধিকার হরণ করেনি দেশের জনগণের জানমালেরও নিরাপত্তা নেই। খুন, গুম, অপহরণ, চাঁদাবাজি, দখলবাজি আজ নিত্য-নৈমিত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। নারী নির্যাতন, শিশু নির্যাতন, ধর্ষণ এবং শিশু হত্যা অহরহ ঘটছে। আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বিরোধী দল দমন-পীড়নে ব্যবহার করায় দেশের আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি চরম অবনতি হয়েছে। সরকার দলীয় নেতা-কর্মীরা সংখ্যালঘু লোকজনের ওপর হামলা, নির্যাতন করে লুটপাট, বাড়িতে অগ্নিসংযোগ এবং তাদের জায়গা দখল করে নিচ্ছে। তিনি আরো বলেন, দেশের রাজনৈতিক স্থিতিশীল পরিবেশ তৈরীর জন্য, উন্নয়ন ও গণতন্ত্র নিশ্চিত করার জন্য সকল দলের অংশ গ্রহণে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য সংলাপের মাধ্যমে নিরপেক্ষ ইসি গঠন এবং জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলা প্রয়োজন।
২০ নবেম্বর কেয়ারটেকার সরকার দাবি দিবসে জামায়াতে ইসলামী চট্টগ্রাম মহানগরীর উদ্যোগে আয়োজিত উক্ত সমাবেশে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।
নগর জামায়াতে ইসলামীর এসিসটেন্ট সেক্রেটারি অধ্যক্ষ মাওলানা খাইরুল বাশারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, নগর জামায়াতের প্রচার সম্পাদক মোহাম্মদ উল্লাহ, কর্মপরিষদ সদস্য মুহাম্মদ ছিদ্দিকুর রহমান, মজলিশে শূরার সদস্য ফয়সাল মুহাম্মদ ইউনুছ, এম.এ.আলম, মোরশেদুল ইসলাম চৌধুরী, আমির হোসাইন ও জাকির হোসেন প্রমুখ। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ