ঢাকা, মঙ্গলবার 22 November 2016 ৮ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ২১ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

নেত্রকোনা-কলমাকান্দা সড়ক চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়ছে

নেত্রকোনা সংবাদদাতা : নেত্রকোনা জেলার অতীব গুরুত্বপূর্ণ শ্যামগঞ্জ-বিরিশিরি-দূর্গাপুর সড়কটি যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হওয়ার পর এখন নেত্রকোনা-কলমাকান্দা সড়কটিও যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ছে। এতে সীমান্তবর্তী প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর নৈসর্গিক সৌন্দর্যের অপূর্ব লীলাভূমি দূর্গাপুর-কলমাকান্দা উপজেলার লাখ লাখ জনসাধারণকে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। 

   ভুক্তভোগী জনসাধারণের অভিযোগ, প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর, নৈসর্গিক সৌন্দর্যদের অপূর্ব লীলাভূমি দূর্গাপুর থেকে চীনা মাটি, সিলিকন বালি ও কয়লা নিয়ে প্রতিদিন শত শত ট্রাক দূর্গাপুর-বিরিশিরি-শ্যামগঞ্জ সড়ক দিয়ে সারা দেশে যাচ্ছে। সড়ক ও জনপথ বিভাগের উদাসীনতা, দায়িত্বে অবহেলা এবং পরিবহন শ্রমিক ও মালিকদের অধিক মুনাফালোভী মানসিকতার কারণে মাত্রাতিরিক্ত মালামাল নিয়ে প্রতিনিয়ত অসংখ্য ট্রাক ও লড়ি চলাচল করায় বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়ে এ সড়কটি ইতিমধ্যে যানবাহন চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

দূর্গাপুর-বিরিশিরি-শ্যামগঞ্জ সড়ক যানবাহন চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ায় দূর্গাপুর-কলমাকান্দা-নেত্রকোনা সড়কে অতিরিক্ত যানবাহন চলাচলের চাপ পড়েছে। এতে করে কলমাকান্দা-নেত্রকোনা সড়কে অসংখ্য খানা খন্দ আর গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে এবার অচল হতে চলেছে কলমাকান্দা-ঠাকুরোকোনা-নেত্রকোনা সড়কটিও। স্থানীয় পরিবহন শ্রমিকদের উদ্যোগে মাঝে মধ্যে মাটি ভরাটের মাধ্যমে যান বাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখার প্রানান্তকর চেষ্টা করা হলেও প্রায়শই ফেঁসে যাচ্ছে ভারী যানবাহন। রোগী নিয়ে দুর্ভোগে পড়েন স্বজনসহ যাত্রীবাহী গাড়ীর চালকরাও। এক ঘণ্টার পথ পারি দেন তিন ঘণ্টায়। এমন দশা বিরাজ করছে প্রায় বছর খানেক ধরে। তবুও নড়ছে না কতৃপক্ষের টনক এমনটাই জানালেন কলমাকান্দা সড়কের বাসের যাত্রী জব্বার আলী।  সরেজমিনে দেখা গেছে, ঠাকুরাকোনা থেকে কলমাকান্দা ২১ কিলোমিটার সড়কের মধ্যে ৩/৪টি এলাকার প্রায় ৪/৫ কিলোমিটার সড়ক ইতিমধ্যে একেবারে নষ্ট হয়ে গেছে। উড়াদিঘী, পাবই, হীরাকান্দা, বাহাদুরকান্দাসহ বেশ কিছু স্থানে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় বাস চলাচলে যাত্রীরা থাকেন আতংকে। প্রায় প্রতিদিনই সড়কে ট্রাক ফেঁসে গিয়ে বিপাকে পড়তে হয় বলে দিনের বেলায় ট্রাক চলাচল বন্ধ করে দেয় এলাকাবাসী। এতে করে দূর্গাপুরের বালু বোঝাই ট্রাকগুলো চলে রাতের আধাঁরে। ট্রাক চালকরাও তাদের ক্ষতি পোষাতে বাধ্য হয়েই ঝুঁকি নিয়ে গাড়ীতে মাত্রাতিরিক্ত মালামাল পরিবহন করেন বলে জানান, চালক খালেক। 

  এ সড়কে চলাচলরত সামছু মিয়া, শহীদ মিয়াসহ যাত্রী সাধারনের অভিযোগ রয়েছে, শ্যামগঞ্জ-বিরিশিরি সড়কটি অচল হবার পর পরিবহণের চাপ বেড়ে যায় এ সড়কে। ফলে প্রতিদিনেই ঘটছে ছোট বড় অসংখ্য দুর্ঘটনা। আর প্রতিদিনই এ সড়কে যানবাহন বিকল হচ্ছে, যাত্রীরা চলছে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে। শ্রমিকদের শহরে কাজ শেষে বাড়ি ফিরতে খরচ হচ্ছে অধিক টাকা। অতি দ্রুত পুরো সড়কটি সংস্কার করা না হলে বন্ধ হয়ে যাবে সীমান্ত অঞ্চলের সব ধরণের যোগাযোগ। 

  এ ব্যাপারে নেত্রকোনা সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ দিদারুল আলম তরফদারের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি শোনালেন আশার বাণী। তিনি বলেন, শ্যামগঞ্জ-বিরিশিরি-দূর্গাপুর সড়কটি ১২ থেকে ১৮ ফিটে উন্নীত করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে একনেকের বৈঠকে ৩১৬ কোটি টাকার প্রকল্প পাশ হয়েছে। নেত্রকোনা-কলমাকান্দা সড়ক সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।  

বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ ঃ বিএনপির চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারীর প্রতিবাদে নেত্রকোনা জেলা বিএনপির উদ্যোগে গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় ছোট বাজারস্থ দলীয় কার্যালয়ে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য আশরাফ উদ্দিন খান, সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল মান্নান, সহ-সভাপতি সৈয়দ জাহেদুল আলম, যুগ্ম সম্পাদক সালাউদ্দিন খান মিল্কী, সাংগঠিক সম্পাদক এস এম মনিরুজ্জামান দুদু, কোষাধ্যক্ষ এস এম মুসা, প্রচার সম্পাদক সেলিম আহমেদ, যুব বিষয়ক সম্পাদক মনি চেয়ারম্যান, সহ-কৃষি সম্পাদক সালাহ্ উদ্দিন আহমেদ নওয়াব, সহ-যুব সম্পাদক কামরুল হক, সহ প্রচার সম্পাদক এড এম এ রফিক, জেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মোস্তফা মাসুদ, স্বেচ্ছাসেবক নেতা শরিফুল আলম সবুজ, যুবদল নেতা রফিকুল ইসলাম, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক অনিক মাহবুব চৌধুরী, সহ-সভাপতি ফারদিন চৌধুরী রিমি, সহ মহিলা বিষয়ক সম্পাদক পারভীন আক্তার প্রমূখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ