ঢাকা, মঙ্গলবার 29 November 2016 ১৫ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ২৮ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ডিম রান্নার নতুন রেসিপি

এখন স্বাদ বদল করার পালা পোস্ত দিয়ে ডিম রান্না। আর দেরি না করে  ঝটপট জেনে নিন ডিম রান্নার নতুন রেসিপিটি।
উপকরণ :
-   চারটা ডিম
-   পোস্তদানা চার টেবিল চামচ
-   পিঁয়াজ তিনটা কুচি করা
-   আদা বাটা এক চা চামচ
-   রসুন বাটা আধা চা চামচ
-   হলুদ গুঁড়ো এক চা চামচ
-   মরিচ গুঁড়ো আধা চা চামচ
-   কাঁচামরিচ দুটো কুচি করা
-   তেজপাতা দুটো
-   চারটা এলাচ
-   লবঙ্গ চারটা, এক টুকরো দারুচিনি
-   ছয় টেবিল চামচ সর্ষের তেল এবং লবণ স্বাদমতো
প্রণালী :
১) পোস্তদানা ভিজিয়ে রাখুন এক ঘন্টা। এরপর কাঁচামরিচের সাথে বেটে নিন।
২) ডিমগুলোকে হার্ড বয়েল অর্থাৎ ভালো করে সেদ্ধ করে নিন। এরপর লম্বালম্বি অর্ধেক করে কাটুন। এর ওপর ছড়িয়ে দিন লবণ, হলুদ গুঁড়ো এবং একটু মরিচ গুঁড়ো। সাবধানে মাখিয়ে নিন মশলা যাতে ডিমগুলো ভেঙ্গে না যায়।
৩) চ্যাপ্টা একটি ফ্রাইপ্যান গরম করে নিন। এতে দিন দুই টেবল চামচ সর্ষের তেল। এতে কাটা অংশ নিচের দিকে দিয়ে ডিমগুলোকে ভেজে নিন। একদিক ভাজা হলে উল্টে ওপর দিকটি ভেজে নিন। এরপর উঠিয়ে রাখুন।
৪) ওই একই সসপ্যানে বাকি তেলটুকু দিয়ে দিন। তেল গরম হলে এতে দিন তেজপাতা, এলাচ, লবঙ্গ, দারুচিনি এবং ৩০ সেকেন্ড নেড়েচেড়ে ভেজে নিন। এরপর এতে দিন পিঁয়াজ, রসুন এবং আদা। পিঁয়াজ হালকা ভাজা ভাজা হয়ে এলে হলুদ গুঁড়ো, মরিচ গুঁড়ো এবং আধা কাপ পানি দিন। জ্বাল কমিয়ে কষাতে থাকুন যাতে পিঁয়াজ পানিতে নরম হয়ে আসে।
৫) মশলার ওপর তেল চলে এলে পোস্তদানা বাটা দিয়ে দিন এর মাঝে। ভালো করে কষিয়ে নিন, তেল আবারও ওপরে উঠে আসবে। ঝোলের মাঝে ছেড়ে দিন ভাজা ডিমগুলো। এক মিনিটের মতো ঝোলে রান্না হতে দিন ডিমগুলোকে। চুলা বন্ধ করে দিয়ে আধা চা চামচ সর্ষের তেল যোগ করতে পারেন ইচ্ছে হলে।
ব্যাস, খুব সহজেই তৈরি হয়ে গেলো ডিম পোস্ত। পরিবেশনের সময়ে ওপরে ছড়িয়ে দিন টাটকা ধনেপাতা। সর্ষের তেলের সুবাসে গরম ভাত দিয়ে ডিমের এই তরকারি খেতে দারুণ লাগবে।

কাটা মশলার গরুর মাংস
উপকরণ : মাংস (বড় পিস) ৩ কেজি, পেঁয়াজ (একটি পেঁয়াজ চার ভাগ) ১ কেজি, রসুন (একটি রসুন কোয়া দুই ভাগ) ২৫০ গ্রাম, আদা (চাক চাক করে কাটা) ২৫০ গ্রাম, সয়াবিন তেল ২৫০ মিলি, শুকনা মরিচ ১০টি, মরিচ গুঁড়া আধা কাপ, হলুদ গুঁড়া ২ চা চামচ, ধনেবাটা ২ চা চামচ, জিরাবাটা ২ চা চামচ, পোস্তদানা, জায়ফল, জইত্রী গুঁড়া ৩ চা চামচ,  তেজপাতা ৫টি, এলাচ, দারুচিনি বাটা ২ চা চামচ, বাদাম বাটা ২ চা চামচ, কাঁচা মরিচ ২০টি, দুই ২ কাপ, গুঁড়া দুধ ১ কাপ, সস ১ কাপ, লবণ স্বাদমতো।
প্রস্তুত প্রণালী : একটি হাড়িতে মাংস নিয়ে এক এক করে সব মশলা দিয়ে হাত দিয়ে মাংসের সাথে মাখাতে হবে। চুলায় বড় আঁচে হাঁড়ি বসাতে হবে। পানি ফুটে আসলে আঁচ কমিয়ে দিতে হবে। পাঁচটা পেঁয়াজ (বেরেস্তা করা), কাঁচামরিচ জিরার গুঁড়া মাংস নামানোর আগে দিয়ে দিতে হবে। তরকারি মাখা মাখা হবে। প্রয়োজনে পানি দিতে হবে। আঁচ কমানো থাকলে মাংসের পানিতেই হয়ে যাবে।

রুই মাছের কোপ্তা
উপকরণ : রুই মাছ (বড়) ১০পিস, পেঁয়াজ (বড়) ৫টি, রসুন ২টি, শুকনা মরিচ (গুঁড়া করে দিতে হবে) ৫টি, কাঁচা মরিচ ৫টি, ধনেপাতা আধা কাপ, পাউরুটি ২ পিস, জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, সরিষার তেল ১ কাপ, ডিম ৪টি, লবণ পরিমাণ মতো।
প্রস্তুত প্রণালী : মাছ লবণ দিয়ে সিদ্ধ করে কাঁটা বেছে নিতে হবে। উপরের কালো অংশ ফেলে দিতে হবে। হাঁড়িতে সরিষার তেল, রসুন, পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচ দিয়ে মাছ দিতে হবে। ধনেপাতা দিতে হবে। ভালোমতো মিশিয়ে মাছ মোটামুটি ভাজতে হবে। স্বাদমতো লবণ দিতে হবে। আগে থেকে ভিজিয়ে রাখা পাউরুটির সাইডের অংশ ফেলে মাছের সাথে দিয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে শুকিয়ে ফেলতে হবে। জিরাগুঁড়া, গোলমরিচ গুঁড়া শুকনা মরিচ গুঁড়া একসাথে মাছের সাথে মিশিয়ে ফেলতে হবে।
ডিম অন্য বাটিতে ফেটিয়ে রাখতে হবে। একটু চিনি, লবণ মেশাতে হবে। সেমাই হালকাগুড়া করে রাখতে হবে। মাছের মিশ্রণটি ছোট কাবাবের সাইজে করে রাখতে হবে। একটা একটা করে ডিমে চুবিয়ে সেমাইয়ে ডুবিয়ে ডুবো তেলে ভাজতে হবে, মাঝারি আঁচে। লাল হয়ে আসলে শুকনা প্লেটে টিস্যু দিয়ে একটা একটা করে নামাতে হবে। গরম গরম সস দিয়ে পরিবেশন করতে হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ