ঢাকা, বুধবার 30 November 2016 ১৬ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ২৯ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

নয়া থাই রাজার নাম ঘোষণার প্রক্রিয়া শুরু

২৯ নবেম্বর, বিবিসি : নতুন রাজা হিসেবে রাজপুত্র মাহা ভাজিরালংকর্নের নাম ঘোষণার প্রক্রিয়া শুরু করেছে থাইল্যান্ড। বিবিসি বলছে, দেশটির পার্লামেন্ট মাহা ভাজিরালংকর্নের কাছে আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণ পাঠানোর বিষয়টি অনুমোদন করেছে। সিংহাসনে আরোহণের আগে তাকে এই আমন্ত্রণ গ্রহণ করতে হবে।
চলতি বছরের ১৩ অক্টোবর দেশটির রাজা ভূমিবল আদুলিয়াদেজের মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুতে থাইল্যান্ডজুড়ে এখনো শোকের ছায়া রয়ে গেছে।
রাজপুত্র ভাজিরালংকর্নই পিতার উত্তরসূরি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন বলে ব্যাপকভাবে ধারণা করা হয়। কিন্তু এরআগে দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন, রাজপুত্র চান নতুন রাজা হিসেবে দায়িত্বগ্রহণের বিষয়টি অন্ততপক্ষে একবছর স্থগিত রাখা হোক। তিনি রাজা হওয়ার আগে রাজা ভূমিবল আদুলিয়াদেজের মৃত্যুর শোক কাটিয়ে ওঠার জন্য থাই জনগণকে সময় দিতে চান- এই কারণই আনুষ্ঠানিকভাবে তখন জানানো হয়। থাইল্যান্ডের পার্লামেন্টের নেতারা আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণ নিয়ে রাজপুত্রের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। রাজপুত্র সেই আমন্ত্রণ গ্রহণ করার পর নতুন রাজা হিসেবে তার নাম জনসমক্ষে ঘোষণা করা হবে। কিন্তু কখন সেটি ঘটবে তা এখনো পরিষ্কার নয়। বর্তমানে রাজপ্রতিনিধি হিসেবে সাবেক প্রধানমন্ত্রী প্রেম তিনসুলানন্দা দায়িত্ব পালন করছেন। এরআগে টেলিভিশনে এক ভাষণে থাই প্রধানমন্ত্রী  জেনারেল প্রায়ুথ চান-ওচা সিংহাসনের উত্তরাধিকার নিয়ে জনগণকে উদ্বিগ্ন না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন। ভাজিরালংকর্নই যে রাজা হচ্ছেন সে বিষয়েও তিনি নিশ্চয়তা দিয়েছিলেন। বিশ্বে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে রাজত্ব পরিচলনাকারী প্রয়াত রাজা ভূমিবল থাইল্যান্ডের নাগরিকদের কাছে অত্যন্ত সম্মানিত এবং অভিভাবকতুল্য ছিলেন। থাইল্যান্ডের সংবিধান অনুযায়ী রাজা রাজনীতির ঊর্ধ্বে হলেও দেশটির রাজনীতির অনেক সংকটময় পরিস্থিতিতে ত্রাতার ভূমিকায় দেখা গেছে রাজা ভূমিবলকে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ