ঢাকা, বুধবার 30 November 2016 ১৬ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ২৯ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রাজধানীর করাঞ্চলগুলোতে উপচে পড়া ভিড়

স্টাফ রিপোর্টার : করদাতাদের সেবা দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে আয়কর মেলার পর প্রথমবারের মতো চলছে আয়কর সপ্তাহ। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) আয়োজিত আয়কর সপ্তাহের গতকাল মঙ্গল পঞ্চম দিনে রাজধানীর করাঞ্চলগুলোতে ছিল কারদাতাদের উপচেপড়া ভিড়।
রিটার্ন জমা দেওয়ার জন্য হাতে মাত্র দুদিন থাকায় অনেক করদাতা সংশ্লিষ্ট কর অফিসে ভিড় জমাচ্ছেন। ৩০ নবেম্বর জাতীয় আয়কর দিবস ও আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষ দিন।
অন্যদিকে শেষ সময়ে সরকারি কর্মকর্তাদের মূল বেতন ১৬ হাজার টাকার বেশি হলেই রিটার্ন জমা বাধ্যতামূলক- সরকারের এমন ঘোষণায় সরকারি কর্মকর্তারা কর অফিসে বেশি আসছেন। যদিও নির্ধারিত সময়ের পরে রিটার্ন জমা দিতে সময় বৃদ্ধি করে আবেদন করতে পারবেন।
কর অঞ্চল-১ এ আয়কর রিটার্ন জমা দিয়েছেন বিদ্যুৎ অফিসে কাজ করেন রায়সেল খান রাজু। তিনি বলেন, ৩০ নবেম্বর আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষ সময় হওয়ায় আজ রিটার্ন জমা দিলাম। শুনেছি রিটার্ন জমা না দিলে বেতন নিয়ে ঝামেলা হবে, তাই আজই রিটার্ন জমা দিলাম।
কর অঞ্চল-১০ এর রিটার্ন জমা দিয়েছেন ব্যাংক কর্মকর্তা কেএম আজাদ। তিনি বলেন, মতিঝিলে অফিস শেষে আয়কর রিটার্ন জমা দিলাম। আয়কর মেলার পরিবেশেই সেবা পেলাম। ছোট পরিসর হলেও সেবার মানও অনেক ভালো।
কর অঞ্চল-১০ এর তথ্য সচিবালয় সূত্রে জানা যায়, আয়কর সপ্তাহের পঞ্চম দিন সোমবার দুপুর দেড়টা পর্যন্ত ১৭ হাজার ৮২৮ জন করদাতা রিটার্ন দাখিল করেছেন। এর মাধ্যমে আয়কর আদায় হয়েছে ৫২ কোটি ৭৮ লাখ টাকা। এ পর্যন্ত প্রায় সাত হাজার ব্যক্তি করসেবা নিয়েছেন। এ পর্যন্ত ২৫ জন করদাতা অনলাইনে আয়কর রিটার্ন দাখিল করেছেন।
আয়কর সপ্তাহ উপলক্ষে করদাতারা প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত রিটার্ন জমা দেওয়ার সুযোগ পাবেন। এনবিআরের আয়োজনে সারাদেশের ৬৪৯টি সার্কেল অফিসে চলছে আয়কর সপ্তাহ।
এদিকে এখন পর্যন্ত ইলেট্রনিক ট্যাক্স আইডেনটিফিকেশন নম্বর (ই-টিআইএন) রেজিস্ট্রেশন ২৪ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। এনবিআর আশা করছে আয়কর রিটার্ন দাখিল করার শেষ সময় ৩০ নবেম্বরের মধ্যে আরো পাঁচ লাখ মানুষ ই-টিআইএন গ্রহণ করবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ