ঢাকা, সোমবার 17 December 2018, ৩ পৌষ ১৪২৫, ৯ রবিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

সুন্দরবনে পর্যটকবাহী লঞ্চে আগুন

অনলাইন ডেস্ক: বাগেরহাট থানার পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের হারবাড়িয়া বন অফিসের সামনে একটি পর্যটকবাহী লঞ্চে আগুন লেগেছে। আজ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে পেলিকেন-১ নামে ওই লঞ্চে আগুন লাগে। তাৎক্ষণিকভাবে আগুন লাগার কারণ জানা যায়নি।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও)  মো. সাইদুল ইসলাম আগুন লাগার খবর নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আগুনের খবর পেয়ে বন বিভাগের পক্ষ থেকে ফায়ার সার্ভিসের বাগেরহাট, মংলা ও খুলনা ইউনিটের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।

ওই লঞ্চে কতজন আরোহী ছিলেন, তাদের কেউ হতাহত হয়েছেন কিনা সেবিষয়ে কোনো তথ্য তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেননি এই বন কর্মকর্তা।

লঞ্চটিতে ২৭ জন পর্যটক ছিলেন বলে জানিয়েছে এই ভ্রমণের আয়োজনকারী প্রতিষ্ঠান সুন্দরবন হলিডেজ টুরস অ্যান্ড ট্রাভেল। 

মংলা কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের স্টাফ অফিসার (অপারেশন) লেফটেন্যান্ট কমান্ডার মো. রাহাতুজ্জামান রাত ৮টার দিকে জানান, সব পর্যটটককে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ‍“আগুন নেভানোর কাজ চলছে। নৌবাহিনী ঘটনাস্থলে রয়েছে, পর্যটকদের নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।”

আগুন পুরোপুরি নেভাতে ফায়ার সার্ভিস ও মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের অগ্নিনির্বাপক বাহিনীর একটি ইউনিটকেও ডাকা হয়েছে বলে জানান এই কোস্টগার্ড কর্মকর্তা।

সুন্দরবন হলিডেজ টুরস অ্যান্ড ট্রাভেলের মালিক বাবু (পুরো নাম পাওয়া যায়নি) বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, সকালে কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে পর্যটকবাহী লঞ্চটি চাঁদপাই রেঞ্জের হারবারিয়ার উদ্দেশে রওনা হয়।

“লঞ্চটি বনবিভাগের হারবারিয়া ক্যাম্প ঘাটে নোঙর করেছিল। সন্ধ্যায় ফেরতি যাত্রা শুরুর কথা থাকলেও আগুন লাগার সময় অধিকাংশ যাত্রী লঞ্চের বাইরেই ছিলেন। আগুনে লঞ্চের ২৮টি কেবিন ক্ষতিগ্রস্ত হলেও কেউ হতাহত হননি।”

লঞ্চের রান্নাঘর বা কারও সিগারেটের আগুন থেকে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করলেও অগ্নিকাণ্ডের সুনির্দিষ্ট কারণ তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেননি তিনি।

ডি.স/আ.হু

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ