ঢাকা, রোববার 4 December 2016 ২০ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটি নয় ষড়যন্ত্র -----ড. হাছান মাহমুদ

স্টাফ রিপোর্টার : সংসদ ভবন এলাকায় শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মাজারে তার লাশ আদৌ  আছে কিনা তা পরীক্ষা করার জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের মুখপাত্র এবং প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটির ঘটনা নিছক কোনো দুর্ঘটনা নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
গতকাল শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাছান মাহমুদ এসব কথা বলেন। বিশ্বের সব সংখ্যালঘুর ওপর নির্মম নির্যাতনের প্রতিবাদে এ কর্মসূচির আয়োজন করা  হয়।
সরকার জিয়ার কবর সরানোর ষড়যন্ত্র করছে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের জবাবে ড. হাছান মাহমুদ  বলেন, জাতীয় সংসদের স্থপতি লুই আই কানের মূল নকশার ব্যত্যয় ঘটিয়ে সংসদ ভবন এলাকার ভেতরে জিয়াউর রহমানের কবরটি স্থাপন করা হয়েছে। দেশের জনগণ মনে করে না যে সেখানে জিয়াউর রহমানের কোনো লাশ আছে। এমনকি যারা জিয়াউর রহমানের হত্যাকা-ের ঘটনাপ্রবাহের সঙ্গে যুক্ত ছিল, তারাও সেখানে জিয়ার লাশ আছে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছিল। সরকারের প্রতি তার আহ্বান, আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে দেখা হোক সেখানে আদৌ জিয়াউর রহমানের লাশ আছে, নাকি অন্য কোনো ব্যক্তির লাশ রাখা হয়েছে।
তিনি বলেন, পরীক্ষার পর যদি দেখা যায়, সেখানে জিয়ার লাশ নেই তাহলে সেখানে তার কবর রাখার প্রশ্নই আসে না উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, শুধু জিয়ার মাজার নয়, সংসদ ভবন এলাকায় কোনো কবর রাখা হবে না। লুই আই কানের পুরনো নকশা অনুযায়ী সংসদ ভবন এলাকা সংরক্ষণ করতে হবে।
হাছান মাহমুদ বলেন, আমাদের স্বাধীনতা সংগ্রাম হয়েছিল অসাম্প্রদায়িক চেতনার ভিত্তিতে। এ কারণে স্বাধীনতারবিরোধী শক্তি ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তি অসাম্প্রদায়িক চেতনার বেদিমূলে আঘাত হানতে চাইছে। তাই দেশের সব গণতান্ত্রিক ও স্বাধীনতার সপক্ষের শক্তিকে সজাগ দৃষ্টি রাখার অনুরোধ জানাব, যাতে পার্শ্ববর্তী কোনো দেশের ঘটনাকে পুঁজি করে আমাদের দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি কেউ নষ্ট করার চেষ্টা করতে না পারে।
আওয়ামী লীগের মুখপাত্র বলেন, শেখ হাসিনা এখন কেবল আওয়ামী লীগের নেত্রী কিংবা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী নন, তিনি এখন বিশ্বনেত্রী। অসামান্য দক্ষতা, প্রজ্ঞা ও মেধা দিয়ে শেখ হাসিনা বিশ্বের কাছে এখন গণতন্ত্র, প্রগতি, অসাম্প্রদায়িকতা ও অগ্রগতির প্রতীক। তাই বিমানের যান্ত্রিক ত্রুটির ঘটনা নিছক কোনো দুর্ঘটনা নয় বলে আমি মনে করি। এটি একটি গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ। তাই সরকারের কাছে এ ঘটনার পেছনে কারা আছে, তা দ্রুত খুঁজে বের করার জন্য দাবি জানাচ্ছি। 
ড. হাছান মাহমুদ আরও বলেন, বিমানের যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে এরই মধ্যে ছয় কর্মচারীকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে। পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্তের মাধ্যমেই পুরো বিষয়টি বেরিয়ে আসবে। জড়িতদের অবশ্যই শাস্তির আওতায় আনা হবে।
মিয়ানমারসহ বিশ্বে যেসব সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন চালানো হচ্ছে, তা অবিলম্বে বন্ধ করার দাবি জানান আওয়ামী লীগের এই নেতা। মানববন্ধনে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় নেতারা বক্তব্য রাখেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ