ঢাকা, মঙ্গলবার 6 December 2016 ২২ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ছিনতাইয়ের অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতাসহ গ্রেফতার ৩

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীতে ছিনতাইয়ের অভিযোগে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তুহিন খানসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তুহিন খান ছাড়া অপর দুই আটক ব্যক্তি হলেন পলাশ কুমার খান ও আল মামুন। তাদের কাছ থেকে ল্যাপটপ ও মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়েছে।

জানা গেছে, ওরা মোটরসাইকেলে করে রিকশা যাত্রীর কাছ থেকে সর্বস্ব ছিনিয়ে নেয়। বিশেষ করে নারী যাত্রীদের ভানিটি ব্যাগ ওদের খুবই পছন্দের। এছাড়া কারো ঘাড়ে ল্যাপটপের ব্যাগ দেছে চোখ চক চক করে ওঠে। টার্গেট নির্ধারণ করে ওরা মোটরসাইকেলে করে ছিনতাই মিশন সম্পন্ন করে। এভাবে রোববার রাত ১২টার দিকে মিরপুর-১০ নম্বর সেকশনে রিকশার এক নারী যাত্রীর পিছু নেয় এই চক্রটি। কিন্তু ভ্যানিটি ব্যাগ টান দেয়ার আগে পুলিশের একটি টহল টিম বিষয়টি আঁচ করতে পারে। পুলিশ ওই মোটরসাইকেলের পিছু নেয়। পরে মিরপুর-২ নম্বর সেকশনের পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সামনের একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে পুলিশ তুহিন খান (৩০)কে গ্রেফতার করে। 

গ্রেফতারকৃত তুহিন খান গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। তবে ঢাকায় পুলিশের কাছে তার পরিচয় ছিনতাইকারী হিসেবে। রাজধানীর মিরপুর এলাকা তার ছিনতাইয়ের জোন। এ জন্য তার রয়েছে ৬ জনের একটি গ্রুপও। 

পল্লবী থানার ওসি দাদন ফকির জানান, আটকের পর তুহিন ছিনতাইয়ের কথা স্বীকার করেছেন। তার বাসা থেকে বিভিন্ন সময়ে ছিনতাই হওয়া আরও তিনটি ল্যাপটপ, মেয়েদের কয়েকটি ভ্যানিটি ব্যাগ, মেয়েদের ব্যবহƒত ছাতা ও বেশ কয়েকটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পল্লবী থানার ওসি দাদন ফকির বলেন, সম্প্রতি রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মোটরসাইকেলে আরোহী সেজে হঠাৎ করে ল্যাপটপের ব্যাগ টেনে নিয়ে চলে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ রকম বেশ কয়েকটি অভিযোগ থানায় এসেছে। এসব অভিযানের প্রেক্ষিতে অভিযান চালানো হচ্ছে। অভিযানের বিষয়ে ওসি বলেন, শনিবার রাতে প্রথমে পলাশ একটি ল্যাপটপ বিক্রি করতে যায়। আগে থেকেই তথ্য থাকায় বিষয়টি নিশ্চিত হয়। এরপরই পুলিশ তাকে নজরদারির মধ্যে রাখে। রোববার রাতে এই ছিনতাইয়ের ঘটনার সময় তাকে হাতেনাতে আটক করা হয়। 

পুলিশের পল্লবী জোনের অপর একজন কর্মকর্তা বলেন, আটকের পর তুহিনকে ছেড়ে দিতে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে ফোন আসে। তবে তথ্য-প্রমাণ পেয়ে তাকে ছাড়া হয়নি। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার চারজনকে আদালতে হাজির করে রিমান্ডের আবেদন করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ