ঢাকা, শুক্রবার 9 December 2016 ২৫ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

নওয়াপাড়ায় মুদি  দোকানীকে পিটিয়ে  হত্যা

অভয়নগর (যশোর) সংবাদদাতা : যশোরের নওয়াপাড়া পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের বুইকারা সিরাজকাটি গ্রামের শ্যামলের ভাটা মোড়ের এক মুদি দোকানীকে রাতের আঁধারে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় আতংকের সৃষ্টি হয়েছে। হত্যার কারণ উদঘাটনে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

নিহতের পরিবার জানায়, গতকাল বুধবার রাতে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে বাড়ি এসে প্রতিবেশী রমিছা বেগমের বাড়িতে  যান। রাত ৯টার দিকে রমিছা বেগম পাশের বাড়ি থেকে টিভি দেখে নিজ বাড়ি আসলে উঠানের জ্বলন্ত চুলার পার্শ্বে প্রতিবেশী আব্দুর রহমান (৫৭) পড়ে থাকতে দেখেন। এ সময় রমিছার আত্মচিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে আসে এবং রক্তাক্ত জখম অবস্থায় আব্দুর রহমানকে উদ্ধার করে অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন। হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানান, মাথার  পেছনে আঘাত ও অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মৃত্যু হয়েছে। বুইকারা সিরাজকাটি গ্রামের মৃত  তোফাজ্জেল মোল্যার ছেলে আব্দুর রহমান স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে বসবাস করতেন। 

একাবাসী জানায়, স্থানীয় রমিছা বেগমের মেয়ে ডলি বেগম ও তার স্বামী উপজেলার ভাটপাড়া গ্রামের আলমগীর হাওলাদারের মধ্যে একমাত্র ছেলেকে নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিবাদ চলছিল। গতকাল বুধবার সকালে আব্দুর রহমান ডলি ও তার স্বামীকে নিয়ে মিমাংশার উদ্দেশ্যে বসেন। এক পর্যায়ে অমিমাংশিত শালিস থেকে ডলির স্বামী উত্তেজিত হয়ে চলে যান। প্রতিবেশীদের ধারণা এরই জের ধরে ডলির স্বামী আলমগীর রাতের আঁধারে হামলা চালিয়ে পিটিয়ে আব্দুর রহমানকে হত্যা করতে পারে। 

রাতেই অভয়নগর থানার ওসি আনিসুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং নিহতের কারণ উদঘাটনে তদন্ত অব্যহত রেখেছেন। এ ব্যাপারে ওসি আনিসুর রহমান জানান, হত্যাকান্ডের সাথে যারাই জড়িত থাকুক না কেন সকলকে আইনের আওতায় আনা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ