ঢাকা, সোমবার 12 December 2016 ২৮ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রোহিঙ্গা মুসলিমদের আশ্রয় প্রদান ও সাহায্যের জন্য সরকার ও বিত্তবানদের প্রতি জৈনপুরী পীরের আহ্বান

সম্প্রতি ৩/১৪ ব্লক জি লালমাটিয়া মোহাম্মদপুর, ঢাকাস্থ আদর্শ ইসলামী মিশন মহিলা কামিল মাদরাসা ও জৈনপুরী খানকা শরীফের উদ্যোগে এক বিরাট দোয়া ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে জৈনপুরী পীর, আমীরে সত্যের ডাক, ওলীয়ে কামিল আল্লামা সৈয়দ মাহবুবুর রহমান পীর সাহেব কেবলা বলেন, আমি বাংলাদেশ সরকার ও দেশবাসীর নিকট জোর দাবি জানাচ্ছি যে, আপনারা সর্বহারা রোহিঙ্গা মুসলিম শরণার্থীদের পাসে এসে দাঁড়ান। তারা আমাদের প্রতিবেশী বিধায় আজ বাংলাদেশে জীবন বাঁচানোর তাগিদে আশ্রয় নিচ্ছে অথচ আমরা মুসলমান ও প্রতিবেশী হয়েও তাদেরকে ফেরত পাঠানোর অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছি। যা ধর্মীয় ও মানবিক দৃষ্টিতে জঘন্য অপরাধ।  মুসলমান হিসেবে একে অপরের প্রতি ৩০টি হক রয়েছে। প্রতিবেশী হিসেবেও একে অপরের প্রতি ৩০টি হক রয়েছে। যারা এদেরকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেবে তারা দুটা হক নষ্টের পাপে পাপী হবে। বান্দার হক আল্লাহ তায়ালা কখনও ক্ষমা করবেন না। পীরসাহেব প্রস্তাব করেন যে, সরকার মজলুমদেরকে সাময়িক আশ্রয় দিয়া, বিভিন্ন দেশের প্রতি আহ্বান জানালে সর্বপ্রকার সাহায্য-সহযোগিতা অবশ্যই পাবেন। বিশেষ করে বিত্তবান ব্যক্তিরা যদি এি নির্যাতিত নিপীড়িত মানুষের সাহায্যে এগিয়ে আসেন স্বয়ং আল্লাহ তাদের সাহায্যে এেিগয় আসবে। পীর সাহেব কেবলা দুঃখ করে বলেন, একদিকে বিজিবি অপরদিকে বিজেপি অর্থাৎ উভয় দেশের বাহিনী যেইভাবে শিশু ও নারীদের জীবন নিয়ে খেলছে তা কাম্য নয়। মানবিক কারণে এই অন্যায় থেকে বিতর থাকুন। আসুন আমরা সম্মিলিতভাবে মিয়ানমারের জালেম সরকারের অমানুষিক নির্যাতনের বিরুদ্ধে দুর্গ গড়ে তুলি। বিশ্বের বিভিন্ন ভ্রাতৃপ্রীম দেশকে সরকারিভাবে অনুরোধ জানিয়ে অতিসত্তর এই বর্বতা বন্ধের প্রচেষ্টা চালানোর জন্য আমি সরকারকে অনুরোধ জানাচ্ছি। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ