ঢাকা, মঙ্গলবার 13 December 2016 ২৯ অগ্রহায়ন ১৪২৩, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সুবর্ণচরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ॥ ১৮টি দোকান ভষ্মীভূত ॥ ৩ কোটি টাকার ক্ষতি

নোয়াখালী সংবাদদাতা: নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরবাটা খাসেরহাট বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১৮টি দোকান ভষ্মীভূত হয়ে ৩ টাকার ক্ষতি হয়েছে। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায় গত শুক্রবার রাত ১০ টায় বাজারের লেপের দোকান থেকে আকস্মিক বৈদ্যুতিক সটসার্কিটে আগুন ধরে যায়। মুহূর্তের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিখা পাশের দোকান গুলোতে ছড়িয়ে যায়।
এতে বাজারের দক্ষিণ পাশের নুর ক্লথ ষ্টোর গলিতে মুদি, ফার্মেসি, কনফেকশনারি, লেপ-তোষক, ওয়ার্কশপ, মুদি মালের গুদাম, খাবার হোটেল, চা-দোকান সহ ১৮টি দোকান সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে। ৫টি দোকান আংশিক পুড়ে গেছে।
খাসেরহাট বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত উল্যাহ জানান, রাতে অনেকেই দোকান-পাট বন্ধ করে বাড়ি যাওয়ার প্রস্ততি নিচ্ছিলেন। এরমধ্যে হঠাৎ বাজারের দক্ষিণ পাশের নুর ক্লথ ষ্টোর গলির একটি লেপ-তোষকের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। মুহূর্তের মধ্যে আগুন আশেপাশের দোকানগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে।
মাইজদী ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র ষ্টেশন মাষ্টার মাহবুবুল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে আমাদের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহযোগিতায় দুই ঘন্টাব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়েছে।
কিন্তু এর আগেই, ওই গলির মুদি, ফার্মেসি, কনফেকশনারি, লেপ-তোষক, ওয়ার্কশপ, মুদি মালের গুদাম, খাবার হোটেল, চা-দোকান সহ ১৮টি সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে এবং ৫টি দোকান আংশিক পুড়ে গেছে। এতে প্রায় দেড় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
 এদিকে সূবর্ণচর উপজেলার চরবাটা খাসেরহাট বাজারের ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১৮টি দোকান ভষ্মীভূত হয়ে  কোটি কোটি টাকা ক্ষতিতে সমবেদনা জানিয়েছে জামায়াতে ইসলামী।
এক বিবৃতিতে জেলা জামায়াতের আমীর মাওলানা আলাউদ্দিন ও সূবর্ণচর উপজেলা আমীর জামাল উদ্দিন ক্ষতিগ্রস্ত দোকান মালিকদের বিশাল ক্ষতির জন্য সমবেদনা জানান। সাথে সাথে সরকার ও স্থানীয় প্রশাসনকে ক্ষতিগ্রস্ত দোকান মালিকদের পাশে দাঁড়ানোর অনুরোধ জানান। এবং সূবর্ণচরে দ্রুত ফায়ার ষ্টেশন স্থাপনের জোর দাবী জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ