ঢাকা, শুক্রবার 16 December 2016 ২ পৌষ ১৪২৩, ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সংলাপের মধ্যদিয়ে একটি শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে

স্টাফ রিপোর্টার :  রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে রাষ্ট্রপতির সংলাপের মধ্যদিয়ে একটি শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে বলে আশা করছে বিএনপি।
গতকাল বৃহস্পতিবার প্রবীন রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদের ৮৪তম জন্মদিন উপলক্ষে তাঁকে শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এ আশা ব্যক্ত করেন। এ সময় এমাজউদ্দীন আহমদকে খালেদা জিয়ার শুভেচ্ছা পৌঁছে দেন তিনি।
রিজভী আহমেদ অভিযোগ করে বলেন, গণতন্ত্র ধ্বংসের জন্য বর্তমান সরকারের পাশাপাশি নির্বাচন কমিশনও দায়ী। তাই একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের প্রাথমিক ধাপ হিসেবে স্বাধীন নির্বাচন কমিশন গঠনে ১৩ দফা প্রস্তাব দিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন।
তিনি বলেন, মাননীয় চেয়ারপারসন যে ১৩ দফা দিয়েছেন, সেই আলোকে যে আলোচনার বা সংলাপের উদ্যোগ নিয়েছেন, মহামান্য রাষ্ট্রপতি তার মধ্যদিয়ে একটি শক্তিশালী, স্বাধীন এবং নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে, এটিই হচ্ছে আমাদের প্রত্যাশা।
এ সময় রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এমাজ উদ্দীন আহমদকে দেশ ও জাতীর অভিবাবক হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, তিনি দেশ জনগন এবং গণতন্ত্রের প্রয়োজনে ত্যাগ স্বীকার করতে গিয়ে কখনো পিছিয়ে থাকেননি, তার মত একজন বরেণ্য ব্যক্তিকেও মামলার আসামী করায় ঘৃনা ও নিন্দা প্রকাশ করে রিজভী আহমদ বলেন, এ সরকার সমাজের কীর্তিমান ব্যক্তিদের অপমান- অপদস্ত করার ক্ষেত্রে ঘৃন্য রেকর্ড সৃষ্টি করেছে।
অধ্যাপক   ইউসুফ   হায়দার  বলেন,  ড.  এমাজ  উদ্দিনের   মত পন্ডিত মানুষের জন্ম যুগে যুগে হয় না শতাব্দিতে হয়, তাকে যে সম্মান আমাদের দেয়া উচিত আমরা সেই  সম্মান  দিতে ব্যর্থ হয়েছি। ড.মামুন   আহমেদ   তার   বক্তব্যে   অধ্যাপক   এমাজ   উদ্দিনের   সুস্বাস্থ্য   ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন। আবু নাসের রহমাতুল্লাহ বলেন, এমাজ উদ্দীনআহমদ আমদের জাতীয় অভিবাক ও সাহসী ত্রাণকর্তা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ