ঢাকা, শনিবার 17 December 2016 ৩ পৌষ ১৪২৩, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রোহিঙ্গা সংকট

রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের (বার্মা) রাখাইন (আরাকান) রাজ্যের মুসলিম সংখ্যালঘু সম্প্রদায়। রাখাইন (আরাকান) রাজ্যটি অতি প্রাচীনকাল থেকে রাজনৈতিক এবং ভাষা সাহিত্য-সাংস্কৃতিকভাবে বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পৃক্ত। মিয়ানমারের সাথে বাংলাদেশের ২৮৩ কি.মি. সীমান্ত রয়েছে। বঙ্গোপসাগর এবং নাফ নদীর দক্ষিণ পশ্চিম মোহনা বেষ্টিত ‘আরাকান ইয়োমা’ নামের দীর্ঘ পর্বত শৃঙ্গ আরাকানকে মিয়ানমারের অন্যান্য অংশ থেকে আলাদা করেছে। রাখাইন শব্দটি এসেছে সংস্কৃত শব্দ রাক্ষস এবং পালি শব্দ ইয়াক্কা (যক্ষ) থেকে যার অর্থ দৈত বা দানব। ‘বৌদ্ধধর্ম’ প্রচারের আগে অধিকাংশ আরাকানি ছিল প্রকৃতি পূজক। রাখাইনে (আরাকান) মুসলিম বসতি সম্পর্কে সুদীর্ঘ ও সুপ্রাচীন ইতিহাস রয়েছে যা জানা প্রয়োজন। ইংরেজিতে একটি কথা আছে- ‘History makes a man wise and Mathematics makes a man deep’ আর আমাদের দেশের রাজনীতিবিদরা বলে থাকেন ‘Politics is a Mathematics’ আমাদের স্কুলে বাংলা সাহিত্যে পাঠ্য ছিল ডক্টর মোঃ এনামূল হক-এর গবেষণামূলক প্রবন্ধ আরাকান রাজসভায় বাঙ্গালা সাহিত্য। সতেরো শতকের অন্যতম শ্রেষ্ঠ কবি আলাওল আরাকান রাজসভায় বাংলা ভাষায় কাব্য চর্চা করেছেন-তাঁর বাড়ি ছিল বর্তমান ফরিদপুর জেলার জালালপুরে। সুতরাং ঐতিহাসিকভাবে আরাকানের রোহিঙ্গাদের সাথে বাংলাদেশের মানুষের ধর্ম, দর্শন, ভাষা সাহিত্যের দিক থেকে গভীর সম্পর্ক রয়েছে এবং ভৌগোলিক নৈকট্যের কারণে সংকটে পড়লেই রোহিঙ্গারা কক্স বাজারে শরণার্থী হিসেবে চলে আসে। ০৯ অক্টোবর মিয়ানমারের কয়েকটি পুলিশ ফাঁড়িতে হামলার ঘটনায় পুলিশের ০৯ সদস্য নিহত হয়। এরপর থেকেই রাখাইন রাজ্যের রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর ব্যাপক নির্যাতন চালাচ্ছে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও সীমান্ত রক্ষিবাহিনী বিজিপি। এর মধ্যে শতাধিক রোহিঙ্গা নিহত হন। অন্তত: ৩৩ হাজার রোহিঙ্গা ঘর-বাড়ি ছেড়েছেন। কিন্তু দেশটির গণতন্ত্রী নেত্রী অং সাং সুচি দাবী করেন নিয়ন্ত্রণেই রয়েছে রাখাইন। সম্প্রতি জাতিসংঘ তাকে আহ্বান করেছে, রাখাইনে সরেজমিনে গিয়ে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে। ইউএনএইচসিআর জানায়, আসিয়ানের সদস্য দেশ মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ায় ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছে। মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজির রাজাক মিয়ানমার সরকার অবস্থানের কড়া সমালোচনা করেন। আর ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেটনো মাসুচি মিয়ানমারের রাজধানী নেপিদোতে গিয়ে সুচির সঙ্গে দেখা করে রোহিঙ্গা ইস্যুতে তার সরকারের কড়া অবস্থানের কথা জানিয়ে এসেছেন। আসিয়ানের বাইরে বিক্ষোভ প্রতিবাদ বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন মুসলিম দেশে। জাতিসংঘ জানিয়েছে বিগত দুই মাসে অন্ততঃ ২২ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। ২০১২ সালে ধর্মীয় সহিংসতার পর ১ লাখ ২০ হাজারের বেশি মুসলমান রাখাইন পালিয়ে যায়।  রাখাইনের উত্তরাঞ্চলে অক্টোবর ১৬ থেকে এ পর্যন্ত সামরিক অভিযানে অন্ততঃ ১০০ জন নিহত এবং ৩০ হাজারের বেশি মানুষ বাড়ি ছাড়া হয়েছে। উপকূলীয় এলাকায় প্রায় ৩ লাখ রোহিঙ্গার আবাস।
বৌদ্ধ সংখ্যা গরিষ্ঠ মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের অবৈধ বাংলাদেশি অভিবাসী হিসেবে দেখা হয়। মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের কোনো নাগরিকত্ব নেই এবং তাদের চলাফেরা ও কাজ-কর্মের ওপর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা হয়। দেশহীন মুসলিম জনগোষ্ঠী মিয়ানমারের রোহিঙ্গারা সমুদ্রে ভাসছে। এদের যেন দুনিয়াতে কেউ নেই।
বৌদ্ধধর্ম প্রাচীন এশিয়ায় ব্যাপক প্রচারিত ধর্ম। ধর্মটি এক সময় ভারতবর্ষ, চীন, সমগ্র মধ্য এশিয়া. আফগানিস্তান, তুর্কীস্থান পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল এবং আজও বার্মা, থাইল্যান্ড, ইন্দোচীন, চীন, জাপান ও তিব্বতে বর্তমান আছে। ভারতবর্ষে এ কথা বলা সহজ যে, ব্রাহ্মণেরা একে নিশ্চিহ্ন করে দিয়েছে। 
বাংলাদেশ ভারতে সীমান্ত দৈর্ঘ্য ৪১৪৪ কি.মি.-যা অরক্ষিত থাকায় ফেনসিডিল এবং ইয়াবার চালান বাংলাদেশে অহরহ আসছে। ইয়াবা বড়ির চালান এতদিন শুধু মিয়ানমার সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশ ঢুকত। কিন্তু বর্তমানে পূর্বাঞ্চলীয় মিজোরাম, ত্রিপুরা ও আসাম রাজ্য দিয়ে ইয়াবা বড়ি বাংলাদেশে আসছে এবং যৃবকের চরিত্র নষ্ট করছে। এ বিষয়ে সীমান্ত সুরক্ষা জোরদার করা দরকার।  মহান আল্লাহ্র ইশারায় নবীজী (সাঃ) এর লালন পালন তথা ভাষা শিক্ষার ভার পড়ে বনি সাদ বংশে। মা হালিমা পালক পুত্র মোহাম্মদ (সাঃ) কে হৃদয় উজার করে ভালবাসতেন, পরম আদরের সাথে দোলনায় দুলিয়ে দুলিয়ে সুললিত কণ্ঠে গাইতেন:- ‘বেঁচে থাকুক মোহাম্মদ সে দীর্ঘজীবী হউক/চিরতরুণ, চির কিশোর, চির মধুর রো’ক/ হয় যেন সে সরদার আর পায় যেন সে মান/ শত্রু তাঁর ধ্বংস হউক ঘুচুক অকল্যাণ/মোহাম্মদের পানে খোদা দয়ার চোখে চাও/চিরস্থায়ী যা কিছু তাই তাঁরে দাও।’
-আবু মুনির

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ