ঢাকা, সোমবার 19 December 2016 ৫ পৌষ ১৪২৩, ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ওয়ালটনের নতুন উদ্ভাবন ‘স্পেকট্রাকিউ-টিভি’

  • ওয়ালটনের ২৮টি প্যাটেন্ট অনুমোদনের অপেক্ষায়

টেলিভিশন প্রযুক্তিতে এক নতুন দিগন্তের সূচনা করতে যাচ্ছে দেশের  ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন। উচ্চ প্রযুক্তি সম্পন্ন টেলিভিশন খাতের ইলেকট্রনিক্স, অপ্টিক্যাল এবং মেকানিক্যাল ডিজাইনিংসহ সকল ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করে চলেছে দেশীয় প্রতিষ্ঠানটি। এরই ধারাবাহিকতায় ওয়ালটন এবার উদ্ভাবন করেছে আগামী প্রজম্মের কোয়ান্টাম ডট (কিউডি) প্লাস প্রযুক্তির ব্যাকলাইট যুক্ত ‘স্পেকট্রাকিউ-টিভি’। এর কালার প্রদর্শনের সক্ষমতা ৯৯ থেকে ১০০ শতাংশ পর্যন্ত। যা দর্শকদের নিয়ে যাবে বাস্তব রঙের দুনিয়ায়। দেখা যাবে ঝকঝকে বিশুদ্ধ রঙের ছবি। 

নতুন এই উদ্ভাবনী প্রযুক্তির পরিচিতি উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার (১৫ই ডিসেম্বর) রাজধানীর মতিঝিলে ওয়ালটনের মিডিয়া অফিসে ’ইনোভেটিভ টেকনোলজী ইনট্রোডিউসিং প্রোগ্রাম’ এর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। যেখানে ওয়ালটন গ্রুপের ফার্স্ট সিনিয়র ডেপুটি ডিরেক্টর ও টেলিভিশন সোর্সিং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ইনচার্জ প্রকৌশলী মোস্তফা নাহিদ হোসেন ওয়ালটনের নেক্সট জেনারেশন কিউডি-প্লাস প্রযুক্তির স্প্রেকটাকিউ-টিভির স্পেশাল টেকনিক্যাল ও মেকানিক্যাল দিকগুলো তুলে ধরেন।  এ সময় তিনি জানান, ওয়ালটনের নিজস্ব প্রকৌশলী দ্বারা ডেভলপকৃত আগামী প্রজম্মের কিউডি-প্লাস প্রযুক্তির স্পেকট্রাকিউ টিভি’র উদ্ভাবন বিশ্ব টেলিভিশন গবেষণায় ওয়ালটন তথা বাংলাদেশের এক নতুন দিগন্তের সূচনা করেছে। ওয়ালটনের নতুন প্রযুক্তির এই টিভির কালার প্রদর্শনের সক্ষমতা সাধারন প্রযুক্তির টিভির তুলনায় অনেক বেশি। যেখানে সাধারণ প্রযুক্তির টেলিভিশনে কালার প্রদর্শনের ক্ষমতা ৬৮ থেকে ৭০ শতাংশ, সেখানে ওয়ালটনের নতুন প্রযুক্তির এই টেলিভিশন ৯৯ থেকে ১০০ শতাংশ পর্যন্ত কালার প্রদর্শন করবে। যা দর্শকদের নিয়ে যাবে প্রকৃত রঙের দুনিয়ায়।

বিশ্ব টেলিভিশন গবেষণায় ওয়ালটন তথা বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য অবদান সম্পর্কে তিনি আরো বলেন, বর্তমানে টেলিভিশন প্রযুক্তিতে ওয়ালটনের ২৮টি নতুন প্যাটেন্ট অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। যেগুলো বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে টেলিভিশন গবেষণায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। 

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক ও বিপণন বিভাগের প্রধান সমন্বয়ক ইভা রেজওয়ানা, নির্বাহী পরিচালক (বিপণন) এমদাদুল হক সরকার, নির্বাহী পরিচালক (পলিসি এন্ড এইচআরএম) এসএম জাহিদ হাসান, নির্বাহী পরিচালক (পিআর এ্যান্ড মিডিয়া) হুমায়ুন কবীর, অপারেটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম, ডেপুটি অপারেটিভ ডিরেক্টর (বিপণন) মোহাম্মদ রায়হান, ওয়ালটন প্লাজা সেলস এন্ড ডেভলপমেন্ট বিভাগের সিনিয়র এ্যাডিশনাল ডিরেক্টর কামাল হোসেন, সিনিয়র ডেপুটি ডিরেক্টর ফিরোজ আলম, সিনিয়র ডেপুটি ডিরেক্টর (প্যানেল আরএন্ডডি) প্রকৌশলী সৌরভ আক্তার, টিভি আরএন্ডডি বিভাগের ইনচার্জ প্রকৌশলী ফরহাদ হোসেন মামনুন, সিনিয়র এ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর তাওসীফ আল মাহমুদ, টেলিভিশন বিপণন বিভাগের প্রধান আব্দুল বারী প্রমুখ, মিডিয়া উপদেষ্টা এনায়েত ফেরদৌস প্রমুখ।  প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ