ঢাকা, মঙ্গলবার 20 December 2016 ৬ পৌষ ১৪২৩, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

৩৫০ কলাগাছ নিধন

চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) সংবাদদাতা : দিনাজপুর চিরিরবন্দরে জমি সংক্রান্ত দ্বন্দ্বের জের ধরে বাড়ী ঘর ভাঙচুড়, অগ্নিসংযোগ ও কলাগাছ কর্তন করেছে প্রতিপক্ষ। জানা গেছে, উপজেলার ফতেজংপুর ইউনিয়নের দেবীগঞ্জের সামসুল আলমের সাথে একাই গ্রামের প্রভাবশালী আফজাল হোসেন মুন্সির জমি সংক্রান্ত দ্বন্দ্বের জের ধরে গত মঙ্গলবার সকালে সামসুল আলমের টিনশেড বাড়ী, ঘেড়া-বেড়া ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে এবং বাড়ী সংলগ্ন জমিতে লাগানো ৩৫০টি কলা গাছ কেটে দিয়েছে আফজাল হোসেন মুন্সি সহ তার ভাড়াটে লোকজন। ঘটনাটি বাধা দিতে গিয়ে সামসুল আলমের স্ত্রী বিজলী বেগম (৩৫), ভাই মসলেম উদ্দিন (৫৫) এবং মসলেমের স্ত্রী জমিলা বেগম (৪৫) গুরুতর আহত হয়েছে।
এলাকাবাসী জানায়, ওই জমিটি সামসুল আলম ক্রয় করে দীর্ঘ দিন ধরে বসতবাড়ী করে বসবাস এবং চাষাবাদ করে আসছেন। হঠাৎ গতকাল আফজাল হোসেন মুন্সির লোকজন তার বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালায়। এ ঘটনায় চিরিরবন্দর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
এ ব্যাপারে আফজাল হোসেন মুন্সির সাথে কথা হলে তিনি বাড়ীঘর ভাঙচুরের কথা স্বীকার করে বলেন, আমার জমিতে লাগানো কলাগাছ তারাই কেটেছে। জমিটি আমি ২০১২ সালে মুল মালিকের কাছ থেকে ক্রয় করি। অপরদিকে সামসুল আলম বলেন, উক্ত জমিটি মৃত খৈরকা বিবির নাতি রিয়াজ উদ্দিন, জহুরুল, জিকরুল, ফজু ও নজুর কাছ থেকে ক্রয় করি। তবে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান, নুর মোহাম্মদ লুনার-এর সাথে কথা তিনি জনান, বিষয়টি নিয়ে একবার সালিশে বসা হয়েছিল। কিন্তু তিন পক্ষের মধ্যে আলম বিহারীরপক্ষ উপস্থিত না থাকায় সালিশ করা সম্ভব হয়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ