ঢাকা, বৃহস্পতিবার 22 December 2016 ০৮ পৌষ ১৪২৩, ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

এবার শৃঙ্খলের দড়ি ছিঁড়ে ফেলবো -----এরশাদ

স্টাফ রিপোর্টার : জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, নব্বইয়ের পর কোনো  সরকারই আমার সঙ্গে সুবিচার করেনি। আমি একজন শৃঙ্খলবদ্ধ রাজনীতিবিদ। আমার হাত পা বাঁধা। বিএনপির আমলে দায়ের করা মামলা এক মাস আগেও সচল করেছে সরকার। সবাই আমাকে শৃঙ্খলের দড়ি দিয়ে বেঁেধ রাখতে চায়। কিন্তু এবার আমাকে শৃঙ্খলের দড়ি দিয়ে আটকে রাখতে পারবে না। সকল শৃঙ্খলের দড়ি ছিড়ে ফেলবো।
গতকাল বুধবার সকালে বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট বার এসোসিয়েশন মিলনায়তনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাতীয় পার্টি আয়োজিত প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মহানগরর দক্ষিণ জাপার সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপির সভাপতিত্বে প্রতিনিধি সভায় আরো বক্তব্য রাখেন পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি, শেখ সিরাজুল ইসলাম, এসএম ফয়সল চিশতি, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল আলম রুবেল প্রমুখ। যৌথভাবে সভা পরিচালনা করেন খোরশেদ আলম খুশু, সুজন দে ও মাহবুবুর রহমান খসরু।
দেশের বর্তমান পরিস্থিতি স্বাভাবিত নয় মন্তব্য করেন সাবেক রাষ্ট্রপতি বলেন, দেশে কোথাও  শান্তি নাই, নিরাপত্তা নাই, গণতন্ত্র বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। জনগণের ভোটের অধিকারও লু্িন্ঠত হচ্ছে। দেশের রাজনীতিবিদদের ভিতরে কোন সহঅবস্থান নেই। একে অপরকে প্রতিপক্ষ মনে করি। এভাবে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র চলকে পারে না।
তিনি বলেন, আমার শাসনামলে মানুষের মাঝে এই হাহাকার ও সংশয় ছিলোনা। তাই মানুষ আবার জাতীয় পার্টির শাসনামলে ফিরে যেতে চায়। আগামীতে একক নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের রায় নিয়ে রাষ্ট্র ক্ষমতায় দেশের মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেবে, দেশে শান্তি সুপ্রতিষ্ঠিত করবে।
এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, জাতীয় পার্টি বিগত দিনের চেয়ে এখন অনেক বেশি শক্তিশালী। অত্যাচার নির্যাতন করে জাতীয় পার্টির অগ্রযাত্রাকে কেউ ব্যাহত করতে পারেনি। শত প্রতিকুলতার মধ্যেও আমাদের পার্টি সত্যিকারের গণমানুষের অধিকার আদায়ের নির্ভরযোগ্য রাজনৈতিক ফ্লাটফর্ম ।
আবু হোসেন বাবলা বলেন, এরশাদ শুধু বাংলাদেশের মানুষের নেতা নন, তিনি সমগ্র দক্ষিণ এশিয়ার গণমানুষের নন্দিত নেতা, শ্রেষ্ঠ সংস্কারক। তিনি আগামী ১ জানুয়ারি  পার্টির মহাসমাবেশে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ থেকে ৩৫ হাজার নেতাকর্মী অংশ গ্রহণ করবেন বলে ঘোষণা দেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ