ঢাকা, সোমবার 26 December 2016 ১২ পৌষ ১৪২৩, ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বিহার সরকার শীঘ্রই গরু জবাইয়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করবে -স্বাস্থ্যমন্ত্রী

২৫ ডিসেম্বর, পার্স টুডে : ভারতের বিহারের স্বাস্থ্যমন্ত্রী তেজপ্রতাপ যাদব বলেছেন, রাজ্য সরকার শিগগিরি কার্যকরভাবে গরু জবাইয়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করবে। তিনি প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে বলেন, প্রধানমন্ত্রী নোট বাতিলের মতো কার্যকরভাবে গরু জবাইয়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করুন।
বিহারের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও রাষ্ট্রীয় জনতা দলের প্রধান লালুপ্রসাদ যাদবের ছোট ছেলে তেজপ্রতাপ শুক্রবার মথুরায় বলেন, ‘গোহত্যায় নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও তা বন্ধ করা যাচ্ছে না কারণ, দেশ থেকে গরুর গোশত রফতানি কমার পরিবর্তে তা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। বিহার সরকার মদে নিষেধাজ্ঞা জারির পরে এবার গরু জবাইয়ের ওপর কার্যকরভাবে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার কাজ করবে।’
তেজপ্রতাপ বলেন, ‘আমরা ভগবান কৃষ্ণের বংশধর। আমরা গো-মাতা, ব্রজভূমি, ব্রজ সংস্কৃতি রক্ষা করার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা চালাব।’
এক পরিসংখ্যানে প্রকাশ, ভারতে সাবেক কংগ্রেস সরকারের শেষ বছরে ২০১৩-১৪ সালে ভারত থেকে ১৩.৮৯ লাখ টন গবাদিপশুর গোশত রফতানি হয়েছিল। বিজেপি সরকারের প্রথম বছর ২০১৪-১৫ সালে তা বেড়ে ১৫ লাখ টনে পৌঁছেছে। বিদেশি মুদ্রার আয়ও ৪৪৬ কোটি ডলার থেকে বেড়ে ৪৯২ কোটি ডলারে পৌঁছেছে।
গত সেপ্টেম্বরে ভারতের দ্বারকা সারদাপীঠের শঙ্করাচার্য স্বামী স্বরূপানন্দ সরস্বতী বলেন, ‘এটা খুব দুর্ভাগ্যজনক ব্যাপার যে, গরু পুজো করা দেশের সরকার তার গোশত বিক্রি করে বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জনে নিয়োজিত রয়েছে!’
তার মতে, দেশের অনেক রাজ্যে গরু জবাই নিষিদ্ধ আছে কিন্তু তা সত্ত্বেও আজ বিশ্বে গরুর গোশত বিক্রিতে ভারত প্রথম স্থানে রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ