ঢাকা, সোমবার 26 December 2016 ১২ পৌষ ১৪২৩, ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

অসহায় মানুষের দুঃখ লাঘবে সমাজের বিত্তবান লোকদের এগিয়ে আসতে হবে

চট্টগ্রাম: ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় কার্যকরী পরিষদ সদস্য ও চট্টগ্রাম মহানগরী উত্তর সভাপতি সালাহউদ্দিন মাহমুদ বলেন দেশে চরম অর্থনৈতিক বৈষম্য থাকার কারণে গরীব, অসহায় ও দুস্থ মানুষের সংখ্যা প্রতিদিনই বেড়েই চলেছে। এর ফলে মানুষ তার নিত্য প্রয়োজনীয় চাহিদা মেটানোর কথা ব্যতিরেকে নিদারুণ কষ্টে দিনাতিপাত করে যাচ্ছে। কিন্তু দেশের বিদ্যমান সম্পদ এক শ্রেণির লোকের হাতে কুক্ষিগত করে রেখে নিজেদের আখের গুছানোতে ব্যস্ত রয়েছে।
এর ফলে সমাজের অসহায় মানুষের আর্থিক দীনতা আরো বেশি প্রকট আকার ধারণ করছে। এ অবস্থায় সেসব মানুষেরা শীতের শুরুতেই এর তীব্রতায় গভীর হতাশা ও আতংকের মধ্যে রয়েছে। মানবতার জন্যে মায়াকান্না করলেও সমাজের এসব অসহায় মানুষের প্রতি রাষ্ট্র, সরকার কিংবা ধনিক শ্রেণির কারো কোন দায়িত্ব নেই! যার দরুন চরম অবহেলার শিকার হতে হচ্ছে এ সকল অসহায়, দুঃখী মানুষকে নিগৃহীত থাকতে হচ্ছে প্রতিনিয়ত। মানবিকতাবোধ থেকেই ধর্ম, বর্ণ, গোত্র নির্বিশেষে সমাজের গরীব, সহায়হীন মানুষের পাশে দাঁড়াতে তিনি সামর্থ্যবান সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। এর মাধ্যমেই আমরা  আমাদের প্রিয় এ বাংলাদেশকে একটি সুখী, সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গঠন করতে সক্ষম হবো।
চট্টগ্রাম মহানগরী উত্তর শিবির আয়োজিত গরীব ও দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আজ (২৩/১২/১৬) এসব কথা বলেন। নগর উত্তর শিবির সেক্রেটারী নাজিব আহসানের পরিচালনায় এতে আরো বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক জসিম উদ্দীন সরকার, শিবির নেতা এসকে সিকদার, মাহবুবুর রহমান, রাশেদুল ইসলাম, ফারুকে আজম, কুতুব উদ্দীন, এম. ওসমান গণি প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে বক্তারা অবহেলায় যাতে কোন দুঃখী মানুষের কষ্ট না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে  প্রতিবেশীসহ সকলের প্রতি আহ্বান জানান। সে সাথে শীতার্ত দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়াতে নিজেদের পাশাপাশি অন্যকে উৎসাহিতকরণে সহযোগিতা করতে বলেন।
অনুষ্ঠানে শিবির নেতৃবৃন্দ প্রায় শতাধিক অসহায়, গরীব মানুষের হাতে কম্বল, গরম কাপড় সহ বিভিন্ন ধরণের শীতবস্ত্র তুলে দেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ