ঢাকা, সোমবার 26 December 2016 ১২ পৌষ ১৪২৩, ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

পাঁচবিবিতে বিদ্যুতের মিটার চুরির হিড়িক : রাতজেগে পাহারা

পাঁচবিবি সংবাদদাতা : কৃষকদের মিটার চুরির হিড়িক রাতজেগে পাহারা দিচ্ছে গভীর নলকূপ। চুরির পর নলকূপের মালিকদের কৌশলে মোবাইল করে চুরি করা ঐসব মিটার ফেরৎ দেওয়ার জন্য ১০ হাজার টাকা করে দাবি করেছে সংঘবন্ধ চোরেরা। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার আটাপুর ইউনিয়নের পূর্ব আটাপুর, হাজরাপুর, আংড়া, রামপুরা ও খোদ্দামাসুল গ্রামের মাঠে। গভীর নলকূপের মিটার চুরির ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে বলে কৃষকরা জানায়। তবে এখনো নলকূপের মিটার চুরির সংঘবন্ধ চোর চক্রের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এদিকে পাঁচবিবি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির পক্ষ থেকে সমিতির গ্রাহক কৃষকরা যাতে গভীর নলকূপের মিটার চুরির অনাকাঙ্খিত ঘটনার শিকার আর না হন সে জন্য এলাকায় মাইকিং এর ব্যবস্থা করেছে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি। গত সোমবার রাতে আটাপুর ইউনিয়নের হাজরাপুর, পূর্ব আটাপুর, আংড়া, রামপুরা ও ক্ষোদ্দামাসুল গ্রামের রাইহানুল, নূর মোহাম্মদ মন্ডল, শরিফ উদ্দিন, আবু বক্কর ও আয়েজ উদ্দিন নামের ৫ কৃষকের গভীর নলকূপের মিটার চুরি করে নিয়ে যায় চোরেরা। চুরি করে যাওয়ার পরে চোরেরা সাদা কাগজে ০১৭০৮৫৭৩৩৯৮ মোবাইল নম্বর লিখে রেখে যায়। পরে চোরদের ফেলে যাওয়া মোবাইল নম্বরে ফোন দিলে তারা জানায় আমাদেরকে গোপনে ১০ হাজার টাকা দিলে চুরি যাওয়া মিটারগুলো যথাস্থানে ফেরৎ দেওয়া হবে।
মিটার চুরির বিষয়ে থানার অফিসার্স ইনচার্জ (তদন্ত) কিরণ চন্দ্র রায়ের সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান চোরদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত আছে এবং গ্রামের বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ