ঢাকা, সোমবার 26 December 2016 ১২ পৌষ ১৪২৩, ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

খুলনার ১৫৮ গির্জায় বড় দিন উদযাপন

খুলনা অফিস : খুলনা মহানগরীসহ নয় উপজেলার ১৫৮ গির্জায় গতকাল রোববার নানান অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের বড় দিন উদযাপন করা হয়েছে। কেক কেটে এ সব অনুষ্ঠানের সূচনা করা হয়। বড় দিন উপলক্ষে প্রার্থনা, ক্রিসমাস ট্রি ও ইস্টার সানডে এবং শুভেচ্ছা বিনিময় করা হয়। 
খ্রিস্টান এসোসিয়েশনের সূত্র জানান, খুলনাঞ্চলের প্রধান প্রধান গির্জা সেন্ট যোসেফস ক্যাথিড্রাল চার্চ, সোনাডাঙ্গা প্রভু যিশুর গির্জা, বানরগাতি চার্চ অব বাংলাদেশ, ফুলবাড়ীগেট, মহেশ্বরপাশা, পাবলা, মতিয়াখালী, গল্লামারী, রূপসা উপজেলার তিলক, জয়পুর, বটিয়াঘাটা উপজেলার জলমা, বয়ারডাঙ্গা, হোগলাডাঙ্গাসহ বিভিন্ন গির্জায় বড় দিন উদযাপন করা হয়েছে।
সকাল ৮টায় নগরীর অধিকাংশ চার্চে প্রার্থনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। এর আগে প্রথম প্রহর রাত ১২টায় সেন্ট যোসেফস ক্যাথিড্রাল চার্চ, সোনাডাঙ্গা বিশপ চার্চ, মুজগুন্নি সেন্ট মেরিচ ও বানরগাতি চার্চ অব বাংলাদেশে প্রার্থনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
খুলনায় অস্ত্রসহ দুই
ব্যবসায়ী গ্রেফতার
খুলনায় অস্ত্রসহ ব্যবসায়ী মো. মাহবুবুর রহমান সুমন খাঁন (২৯) ও মো. সাইফুল ইসলাম গাজীকে (৪০) গ্রেফতার করা হয়েছে। জেলার পাইকগাছা থানাধীন পাইকগাছা কয়রাগামী পিচ ঢালায় রোডের শিববাড়ী ব্রিজের উত্তর পাশে মো. রজব আলী দপ্তরীর চায়ের দোকানের সামনে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব-৬ এর সদস্যরা তাদেরকে গ্রেফতার করে।
র‌্যাব-৬ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত শনিবার দিবাগত রাত সোয়া ১১টার দিকে র‌্যাবের একটি টিম পাইকগাছা-কয়রাগামী পিচ ঢালায় রোডের শিববাড়ী ব্রিজের উত্তর পাশে মো. রজব আলী দপ্তরীর চায়ের দোকানের সামনে অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় কয়রার ঘড়িলাল গ্রামের বাসিন্দা মো. মহব্বত আলীর ছেলে অস্ত্র ব্যবসায়ী মো. মাহবুবুর রহমান সুমন খাঁন ও একই উপজেলার মহারাজপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. শের আলী গাজীর ছেলে মো. সাইফুল ইসলাম গাজী (৪০) কে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের মধ্যে বিদেশী আগ্নেয়াস্ত্র পিস্তলটি (এক রাউন্ড গুলি ভর্তি অবস্থায়) মো. মাহাবুবুর রহমান সুমন খাঁন (২৯) এর পরিহিত জিন্স প্যান্টের কোমর হতে এবং তিন রাউন্ড গুলি মো. সাইফুল ইসলাম গাজী (৪০) এর পরিহিত প্যান্টের সামনের ডান পকেটে রক্ষিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। অবৈধ অস্ত্র-গুলি ব্যবসায়ীদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা ও এ ধরণের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ