ঢাকা, মঙ্গলবার 27 December 2016 ১৩ পৌষ ১৪২৩, ২৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

অর্থনৈতিক উন্নয়নে উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা দরকার

স্টাফ রিপোর্টার : অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা দরকার বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আব্দুল মান্নান। অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য প্রথমেই প্রয়োজন উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ হওয়া।
গতকাল সোমবার ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ব্যাঙ্কুয়েট হলে ‘বাংলাদেশের কৃষিভিত্তিক শিল্প গবেষণা ও উন্নয়ন : সরকারি বেসরকারি উদ্যোগের সেতুবন্ধন’ শীর্ষক কর্মশালায় তিনি এসব কথা বলেন। ইনোভেশন হাব অব ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ও এসিআই লিমিটেড যৌথভাবে এ কর্মশালার আয়োজন করে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (স্টুডেন্ট এফেয়ার্স) সৈয়দ মিজানুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. ইউসুফ এম ইসলাম, বাংলাদেশে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর এম আলী আকবর, এসিআই লিমিটেডের চেয়ারম্যান আনিস-উদ-দৌলা, ব্র্যাকের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. মো. আবুল কালাম আজাদ, ইনোভেশন হাবের পরিচালক গোলাম মনওয়ার কামাল প্রমুখ।
আব্দুল মান্নান বলেন, গবেষণাবান্ধব উৎপাদন ছাড়া একটি দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন সম্ভব নয়। অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য উৎপাদন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ফলে টেকসই উৎপাদনের জন্য প্রয়োজন গবেষণা ও প্রশিক্ষণ। আর গবেষণাবান্ধব উৎপাদনের মাধ্যমেই অর্থনৈতিক উন্নয়ন সম্ভব।
ইউজিসি চেয়ারম্যান বলেন, গবেষণার পাশাপাশি টেকসই উৎপাদনের জন্য কারখানা এবং মাঠপর্যায়ের উৎপাদনকে প্রাধান্য দেওয়া উচিত। মাঠপর্যায়ের কৃষিশিল্পে আমাদের নির্ভরতা কমেছে। কৃষকদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ এবং গবেষণার মাধ্যমে উৎপাদন বাড়িয়ে কৃষিশিল্পকে অর্থনৈতিক মুক্তির ঘাঁটিতে পরিণত করা সম্ভব।
তিনি বলেন, তৈরি পোশাক খাত আমাদের একটি বড় শিল্প। তবে এ খাতে বিপর্যয়ও রয়েছে। সেক্ষেত্রে কৃষিশিল্প যথেষ্ট সম্ভাবনাময়।
আব্দুল মান্নান বলেন, উন্নত দেশগুলো আনেক আগে থেকেই গবেষণামুখী কার্যক্রম করে আসছে। আমাদের দেশেও শুরু হয়েছে, তবে এটাকে আরও গতিশীল করা দরকার। এর জন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে গবেষণামুখী কার্যক্রম বাড়ানোর পাশাপাশি কারখানাগুলোর সহযোগিতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কেননা গবেষণা কার্যক্রম ইন্ডাস্ট্রির একটি বড় অংশ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ