ঢাকা, শুক্রবার 30 December 2016 ১৬ পৌষ ১৪২৩, ২৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

গ্যাস ও পানির দাম না বাড়াতে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে ক্যাব এর স্মারকলিপি

চট্টগ্রাম অফিস : আগামী ১ জানুয়ারি থেকে গ্যাস ও ঢাকা ও চট্টগ্রাম ওয়াসার পানির মূল্য বৃদ্ধির প্রস্তাব অনুমোদন না দেবার জন্য প্রধান মন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেছেন দেশের ক্রেতা-ভোক্তাদের স্বার্থ সংরক্ষণকারী জাতীয় প্রতিষ্ঠান কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) নেতৃবৃন্দ। গতকাল বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করে ক্যাব নেতৃবৃন্দ। চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের পক্ষে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) শংকর রঞ্জন সাহা এবং জেলা প্রশাসকের পক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব) আবদুল জলিল ভুইয়া প্রধান মন্ত্রী বরাবরে প্রেরিত স্মারকলিপি গ্রহন করেন। ক্যাব কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, ক্যাব চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাধারন সম্পাদক কাজী ইকবাল বাহার ছাবেরী, সহ-সভাপতি আবদুল মান্নান এ সময় উপস্থিত ছিলেন। স্মারকলিপিতে ক্যাব নেতৃবৃন্দ বলেন দাম বাড়ানোর যুক্তিসংগত কারণ না থাকার পরও আরেক দফা গ্যাসের দামবৃদ্ধির প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। গ্যাসের দাম বাড়লে বিদ্যুৎ উৎপাদন, সারকারখানা, শিল্প, বাণিজ্যিক, চা-বাগানসহ সব ক্ষেত্রেই দাম বাড়বে। মাত্র এক বছরের ব্যবধানে গ্যাসের দাম প্রায় দ্বিগুণ করার সিদ্ধান্ত কতটুকু দেশ ও জনস্বার্থ অনুকূল তা ভেবে দেখা দরকার। গ্যাসের দাম বৃদ্ধির বিইআরসিতে অনুষ্ঠিত গনশুনাননিতে কোম্পানীগুলি কোনো জোরালো যুক্তি তুলে ধরতে পারেনি। আবার এখন গ্যাস সংকটে বাসাবাড়ি ও শিল্প-কারখানায় ব্যাপক দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বিদ্যমান সংকটকে তীব্র করে তুলেছে শীতকালীন প্রতিকূল অবস্থা। সঞ্চালন ও বিতরণ পাইপগুলোতে ময়লা ও উপজাত (কনডেনসেট) জমে সরবরাহ বিঘিœত হচ্ছে। এ অবস্থায় উচ্চহারে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্তকে জনজীবনে মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হিসেবেই বিবেচনা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যেই মূল্যবৃদ্ধির সংবাদে জন-অসন্তোষ শুরু হয়েছে। কারণ গ্যাসের উচ্চহারে মূল্যবৃদ্ধির কারণে উদ্যোক্তা বিনিয়োগ নিরুৎসাহিত হওয়াসহ বাড়বে মূল্যস্ফীতি, সামগ্রিক অর্থে যার নেতিবাচক প্রভাব পড়বে মানুষের জীবনযাত্রার ওপর। গ্যাসের দাম বৃদ্ধির মূল কারণ হিসাবে গ্যাসের দামের ওপর থেকে সরকারের শুল্ক ও কর সংগ্রহের সিদ্ধান্ত এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা বৃদ্ধির কথা বলা হলেও এটা কোনো জোরারো যুক্তি নয়। আবার, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা বৃদ্ধির জন্য বাড়তি যে অর্থ সংস্থাগুলোর প্রয়োজন, তার সংস্থান তাঁদের উদ্বৃত্ত অর্থ দিয়েই করা সম্ভব। গ্যাসখাতের প্রতিটি কোম্পানির হাতে বিপুল পরিমাণ উদ্বৃত্ত অর্থ রয়েছে। সিস্টেম লসের নামে লুঠপাট, চুরি, অপচয় এবং নানাবিধ দুর্নীতি-অনিয়ম বন্ধ করলেও বিপুল অর্থের সাশ্রয় করা যাবে। এই অবস্থায় গ্যাসের দাম বাড়ানোর কোনো যুক্তি নেই। 

চট্টগ্রাম ওয়াসা কর্তৃপক্ষ অতি উচ্চহারে পানির দাম বাড়াতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে। সংস্থাটি প্রতিবছর ৫ শতাংশ করে পানির দাম বাড়ালে আগামী বছর থেকে গ্রাহক পর্যায়ে প্রতি ইউনিটে (এক হাজার লিটার) আবাসিকে ৩১ দশমিক ৪০ শতাংশ ও অনাবাসিক (শিল্প ও বাণিজ্য) ৪৮ দশমিক ৪২ শতাংশ দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দেয়। আবাসিক ও অনাবাসিক মিলিয়ে গড়ে প্রায় ৪০ শতাংশ হারে পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করেছে। এক লাফে এত বেশি দাম বাড়ানোর এখতিয়ার চট্টগ্রাম ওয়াসার না থাকলেও তারা তা করতে দুঃসাহস দেখাচ্ছে। অন্যদিকে গণশুনানি ছাড়া এ বড় ধরনের দাম বাড়ানোর প্রক্রিয়াও অগ্রহনযোগ্য। সিস্টেম লস, পানি চুরি, ও অনিয়ম বন্ধ করা গেলে বিপুল পরিমাণ রাজস্ব বৃদ্ধি পাবে। উচ্চহারে প্রতি বছর গ্যাস-বিদ্যুৎ এবং পানির দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত সাধারণ মানুষের জন্য বড়ই দুঃসংবাদ। এর পরিণামে জীবনযাত্রার সবক্ষেত্রে চরম নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। মূল্যবৃদ্ধির কারণে নির্দিষ্ট আয়ের মানুষের ভোগান্তি বেড়ে যাবে কয়েকগুণ। বাড়ি ভাড়া, নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী, যাতায়াত খরচ, বিভিন্ন পণ্যের উৎপাদন ব্যয় বাড়বে। গ্যাস-পানি ও বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির কারণে নতুন বিনিয়োগ নিরুৎসাহিত হবে। উৎপাদন ও পরিবহন খরচ থেকে শুরু করে বাসাভাড়া, যাতায়াত খরচ, ভোগপণ্য, শিক্ষাব্যয় ও স্বাস্থ্যসেবাসহ সবকিছুতেই বাড়তি খরচের খড়গ নেমে আসবে। এ ব্যয় বৃদ্ধির ফলে সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়তে হবে সীমিত ও নির্দিষ্ট আয়ের মানুষেরা, যাদের কোনো আয় বাড়বে না, অথচ ব্যয়ের বাজেট বেড়ে যাবে। স্মারকলিপিতে অনতি বিলম্বে গ্যাস ও পানির মূল্যবৃদ্ধির প্রস্তাব প্রত্যখান করে সিংহভাগ জনগোষ্ঠির জীবনযাত্রায় স্বস্তি আনা এবং গ্যাস, পানি, স্বাস্থ্যসহ সকল সেবা সংস্থায় গণশুনাণীর মাধ্যমের গ্রাহকদের সন্তুষ্টি ও সেবার মান নিশ্চিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ