ঢাকা, শনিবার 31 December 2016, ১৭ পৌষ ১৪২৩, ১ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সাফ মহিলা ফুটবলে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ আজ ভারত

স্পোর্টস রিপোর্টার : ম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ে ভারতের বিপক্ষে নামবে বাংলাদেশ। চলতি আসরে শুরুর হিসেব কষলে এগিয়ে অবশ্য বাংলাদেশই। আফগানিস্তানকে ৫-১ গোলে হারিয়েছিল ভারত। অন্যদিকে আফগানদের ৬-০ ব্যবধানে উড়িয়ে সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। অধিনায়ক সাবিনা একাই করেন পাঁচ গোল; অপর গোলটি সিরাত জাহান স্বপ্নার। দুটি দলের সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত হওয়ায় ম্যাচটি গ্রুপ সেরা হওয়ার লড়াই হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে বাংলাদেশ কোচ ও অধিনায়কের মুখে ভারতকে হারানোর ঘোষণা নেই। বাংলাদেশ অধিনায়ক সাবিনা ভারতকে সমীহ করেই বললেন, “ভারত তো অবশ্যই শক্তিশালী দল। তবে আমরাও হারার আগে হেরে যাচ্ছি না।
যার যে প্রশংসা প্রাপ্য, সেটা তো দিতে হবে। আমরা চেষ্টা করব নিজেদের শতভাগটা দেওয়ার।” বালা দেবি, সাসমিতা মালিক, কমলা দেবির মতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড় দিয়ে সাজানো ভারতের আক্রমণভাগ। শামসুন্নাহার-শিউলি-নার্গিসে গড়া বাংলাদেশ রক্ষণভাগের ওপর দিয়ে যাবে ঝড়টা। সাবিনা আত্মবিশ্বাসী নিজের রক্ষণ সামলানো নিয়ে। মাঝমাঠের মাইনু-মৌসুমি-মারিয়ার ওপর রাখছেন আস্থা। “রক্ষণভাগ নিয়ে আত্মবিশ্বাস আছে। মাঝমাঠও শক্তিশালী আছে। গত ম্যাচে আমাদের রক্ষণভাগ যেভাবে খেলছে, এ ম্যাচে আশা করি সেভাবে খেলবে। যেহেতু ভারতের বিপক্ষে খেলা, সেহেতু আমাদের লক্ষ্য থাকবে গোল না খাওয়া। ডিফেন্ডারদেরও বলব আরও মানসিকভাবে শক্ত হতে।” সোজা কথায় ব্যর্থতার বৃত্ত ভাঙতে ড্রয়ের ছকে থাকছে বাংলাদেশ। ঠিক উল্টো মেরুতে ভারত কোচ সাজিদ ধর। তবে বাংলাদেশকে মোটেও হালকাভাবে নিচ্ছেন না। আফগানদের জালে গোল উৎসবে মাতা বাংলাদেশের সাবিনাকে আটকে জয়ের ছক কষছেন তিনি। “বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ম্যাচের প্রথমার্ধ দেখিনি; দ্বিতীয়ার্ধ দেখেছি। সাবিনা গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়; তাকে আটকানোর জন্য আমরা ছক কষব।” “সেমি-ফাইনালে প্রতিপক্ষ নেপাল না অন্য কেউ সেটা নিয়ে ভাবছি না; এটা ভেবে চাপ নিতে চাই না। সব ম্যাচই আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এবং গোল ব্যবধান কত হলো সেটা বিষয় নয়। কে কত গোল করল সেটাও বিষয় নয়। বাংলাদেশ ভালো প্রতিপক্ষ। তবে আমরা জিততে চাই।” শক্তি-সামর্থ্যরে ব্যবধান থাকলেও দুই দলের চাওয়াটা উত্তেজনার রেণু ছড়াচ্ছে শিলিগুঁড়িতে!

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ