ঢাকা, বুধবার 19 September 2018, ৪ আশ্বিন ১৪২৫, ৮ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ছয় স্থপতি-প্রকৌশলীকে সম্মাননা জানাল সেভেন রিংস সিমেন্ট

সেভেন রিংস সিমেন্টের পক্ষ থেকে ছয় স্থপতি ও প্রকৌশলীকে সম্মাননা জানানো হয়। ছবি : সংগৃহীত

অনলাইন ডেস্ক: স্থাপত্য ও নির্মাণ শিল্পে নান্দনিক উপস্থাপনা ও কৃতিত্বের স্বীকৃতি স্বরূপ ছয় স্থপতি ও প্রকৌশলীকে সম্মাননা দিয়েছে সেভেন রিংস সিমেন্ট। গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর লা মেরিডিয়েন হোটেলে এই সম্মাননা জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন এশিয়া-প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী।

‘ট্রিবিউট টু লিজেন্ডস’ শিরোনামের এই আয়োজনে সম্মাননাপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন—বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত যুক্তরাষ্ট্রের কাঠামোগত প্রকৌশলী (স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ার) ও স্থপতি ফজলুর রহমান খান (এফ আর খান), স্থপতি ও নগর পরিকল্পনাবিদ মাজহারুল ইসলাম, স্থপতি সৈয়দ মাইনুল হোসেন, বুয়েটের প্রথম নারী উপচার্য খালেদা একরাম, স্থানীয় সরকার, প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) প্রতিষ্ঠাতা প্রধান প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম সিদ্দিক ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম উপাচার্য এম এ রশিদ। নিজ নিজ ক্ষেত্রে অসাধারণ অবদানের জন্য এই ছয়জনকে সম্মাননা জানানো হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী বলেন, ‘স্থাপত্য এবং প্রকৌশলে যুক্ত এ মানুষেরা নিজেদের সেরা কাজটি করার মাধ্যমে আমাদের দেশকে অন্য এক উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। প্রকৌশলী এফ আর খান বিংশ শতাব্দীর শ্রেষ্ঠতম স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ার স্বীকৃতি পেয়ে আমাদের দেশের জন্য বিরাট সম্মান বয়ে এনেছেন। একইভাবে প্রকৌশলী এম এ রশিদ বুয়েটের প্রথম উপাচার্য হিসেবে প্রকৌশল বিষয়টাকে শক্ত একটা ভিতের মধ্যে দাঁড় করিয়ে গেছেন। স্থপতি মাজহারুল ইসলামকে বলা হয় আধুনিক স্থাপত্যের জনক।’

‘বাংলাদেশ নানাভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। স্থাপনা বা এ শিল্পকে এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে সম্মাননাপ্রাপ্ত মানুষদের যে অবদান, তা নতুন প্রজন্মের অনেককে অনুপ্রাণিত করছে এবং করে যাবে।’

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বিশ্বের অনেক দেশের মতো স্থাপত্যশিল্পে এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশ আজ বিশ্ব দরবারে সমাদৃত। আর এটি সম্ভব হয়েছে এ দেশের মহান স্থপতি ও প্রকৌশলীদের অসামান্য প্রতিভা আর নিরলস পরিশ্রমের কারণে। এঁদের মধ্যে অনেকেই ভবিষ্যতে স্থপতি ও প্রকৌশলীদের কাছে হয়ে আছেন নিরন্তন অনুপ্রেরণার উৎস। এমনই কিছু মহান ব্যক্তিত্বদের প্রতি সম্মান জানাতেই এমন উদ্যোগ। 

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশের সাবেক সভাপতি প্রকৌশলী অধ্যাপক ড. শামীম জেড বসুনীয়া, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম, ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর, ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ডুয়েট) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আলাউদ্দীন, ইনস্টিটিউট অব আর্কিটেক্টস বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক স্থপতি কাজী এম আরিফ,  স্থপতি এহসান খান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন সেভেন রিংস সিমেন্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আলী পাশা, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) শেখ রায়হান আহমেদ, প্রধান বিপণন কর্মকর্তা আসাদুল হক সুফিয়ানী ও আমন্ত্রিত অতিথিরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ