ঢাকা, বুধবার 04 January 2017, ২১ পৌষ ১৪২৩, ০৫ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

চলতি বছরের হজ্ব প্যাকেজ চূড়ান্ত শিগগিরই মন্ত্রিসভায় উঠছে

স্টাফ রিপোর্টার: চলতি ২০১৭ সালের পবিত্র হজ্ব পালনের ব্যয় সংক্রান্ত হজ্ব প্যাকেজ চূড়ান্ত করেছে মন্ত্রণালয়। সরকারি অনুমোদনের জন্য শিগগিরই এ প্যাকেজ মন্ত্রিসভায় উঠবে। সম্প্রতি ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে হজ্ব প্যাকেজ  ঘোষণা সংক্রান্ত বিষয়ে পুক্সক্ষানুপুক্সক্ষভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষাপূর্বক পূর্ণাঙ্গ প্রস্তাব প্রণয়ন করা হয়েছে বলে জানা গেছে। সরকারি ব্যবস্থাপনায় দু‘টি প্যাকেজ হলো জনপ্রতি ৩ লাখ ৭৩ হাজার ৬শ’ ৭২ টাকা ও ৩ লাখ ৮ হাজার ৬শ’ ২৮ টাকা।
সূত্রমতে, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সভায় ঘোষণা দেয়া হয়েছে আগামী ১ সেপ্টেম্বর চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ১৪৩৮ হিজরি সনের ৯ জিলহজ্ব তারিখে পবিত্র হজ্ব অনুষ্ঠিত হবে। চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে সর্বমোট ১ লাখ ২৭ হাজার হজ্বযাত্রী পবিত্র হজ্ব পালনের জন্য সউদী আরবে যেতে পারবেন। এর মধ্যে ১০ হাজার সরকারি ব্যবস্থাপনায় আর বাকি সব  বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ্বে যাবেন। তবে গত বছরের প্রাক-নিবন্ধিত প্রায় ৪০ হাজার অগ্রাধিকার পাবেন। আগামী ২৮ জানুয়ারি সউদী আরবের জেদ্দায় সউদী-বাংলাদেশ দ্বি-পাক্ষিক হজ্ব চুক্তি অনুষ্ঠিত হবে। সউদী হজ্ব মন্ত্রী ও ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান স্ব-স্ব দেশের পক্ষে হজ্ব চুক্তিতে স্বাক্ষর করবেন। এবার হজ্ব চুক্তিতে বাংলাদেশের হজ্বযাত্রীর কোটা বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে।
মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, আগামী ১৫ জানুয়ারি সরকারি ব্যবস্থাপনার হজ্বযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধন কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করা হবে। এ ব্যাপারে সকল প্রস্তুুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। সরকারি ব্যবস্থাপনায় এ-প্যাকেজের মূল্য প্রস্তাব করা হয়েছে জনপ্রতি ৩ লাখ ৭৩ হাজার ৬শ’ ৭২ টাকা আর বি-প্যাকেজের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে জনপ্রতি ৩ লাখ ৮ হাজার ৬শ’ ২৮ টাকা। আসন্ন মন্ত্রিসভায় এ দু’টি হজ্ব প্যাকেজ অনুমোদনের পর তা’ চূড়ান্ত হবে। প্রত্যেক হজ্বযাত্রীকে কুরবানি খরচ বাবদ সাড়ে ১০ হাজার টাকার সমপরিমাণ ৫শ’ সউদী রিয়াল নিজ দায়িত্বে সংগে নিতে হবে। ২০১৬ সালে এ-প্যাকেজের মূল্য ছিল জনপ্রতি ৩ লাখ ৬০ হাজার ২৮ টাকা আর বি-প্যাকেজের মূল্য ছিল ৩ লাখ ৪ হাজার ৯শ’ ৩টাকা। চলতি বছর হজ্ব প্যাকেজের মূল্য প্রায় ১০ হাজার টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। যত্রীদের প্রতিটি ট্রলি ব্যাগের মূল্য অহেতুক বাড়িয়ে ২৫শ’ টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে। গত বছর প্রতিটি ট্রলি ব্যাগের মূল্য ২ হাজার টাকা নেয়া হয়েছে এ নিয়েও নানা বির্তকের সৃষ্টি হয়েছিল। এবার যাত্রীদের ট্রলি ব্যাগের দাম  আরো ৫শ’ টাকা করে বাড়ানো হয়েছে। বিশ্ব বাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য হ্রাস পাওয়ার পরেও যাত্রীদের বিমান ভাড়া কমানো হয়নি। চলতি বছর যাত্রীদের বিমান ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে (বিভিন্ন ট্যাক্সসহ) জনপ্রতি ১ লাখ ২৬ হাজার ৬শ’ ৯৫ টাকা ৭১ পয়সা। মক্কা-মদিনায় এবার যাত্রীদের বাড়ি ভাড়া ধরা হয়েছে জনপ্রতি ১ লাখ ৫০ হাজার ৫শ’ ৯১ টাকা। তবে বাড়ি ভেদে বাড়ি ভাড়ার অব্যয়িত অর্থ যদি থাকে তা’ সউদী আরবে যাত্রীদের ফেরত দেয়া হবে। প্রাক-নিবন্ধের সময়ে প্রত্যেক যাত্রীকে নিবন্ধন ফিসহ ৩০ হাজার টাকা নির্ধারিত ব্যাংকে জমা দিতে হবে। প্যাকেজের অবশিষ্ট অর্থ আগামী ২০ মে’র মধ্যে ব্যাংকে জমা দিয়ে নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে। এ  ক্ষেত্রে ব্যাংকসমূহ নিবন্ধন সিস্টেমে উক্ত অর্থ প্রাপ্তি তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত করবে। পরবর্তীতে অর্থ প্রাপ্তি নিশ্চিত সাপেক্ষে আইটি কর্তৃক যাত্রীকে ব্যবস্থাপনা সিস্টেমে (এইচএমআইএস) তার প্রিলগ্রিম আইডি (পিআইডি) প্রদান পূর্বক নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পাদিত হবে। যে সকল প্রাক নিবন্ধিত যাত্রী অবশিষ্ট অর্থ জমা প্রদান করে বিষয়টি ব্যাংক এ ক্ষেত্রে ব্যাংকসমূহ নিবন্ধন সিস্টেমে উক্ত অর্থ প্রাপ্তি তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত করবে। পরবর্তীতে অর্থ প্রাপ্তি নিশ্চিত সাপেক্ষে আইটি কর্তৃক যাত্রীকে  ব্যবস্থাপনা সিস্টেমে (এইচএমআইএস) তার প্রিলগ্রিম আইডি (পিআইডি) প্রদান পূর্বক নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পাদিত হবে।  যে সকল প্রাক নিবন্ধিত যাত্রী অবশিষ্ট অর্থ জমা প্রদান করে বিষয়টি ব্যাংক নিবন্ধন সিস্টেমে নিশ্চিত করবেন না, তারা হজে গমনে অনিচ্ছুক বলে গণ্য হবেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ