ঢাকা, শুক্রবার 18 October 2019, ৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

সেরা কোচের পুরস্কার জিততে আশাবাদী নন জিদান

অনলাইন ডেস্ক: ২০১৬ সালের ফিফা বর্ষসেরা কোচের পুরস্কার জিততে মোটেই আশাবাদী নন রিয়াল মাদ্রিদ বস জিনেদিন জিদান। তার মতে এই পুরস্কার জিততে না পারাটাই বরং যৌক্তিক হবে।

সানতিয়াগো বার্নাব্যুতে কোচ হিসেবে প্রথম বছরে ফ্রান্সের এই সাবেক তারকা একে একে জয় করেছেন চ্যাম্পিয়নস লীগ, ইউয়েফা সুপার কাপ ও ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা। সে কারনেই ফিফার বিচারে বছরের সেরা কোচের সংক্ষিপ্ত তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন জিদান। তার সাথে শীর্ষ তিনের এই তালিকায় আরো আছেন প্রিমিয়ার লীগ চ্যাম্পিয়ন লিস্টার সিটি ম্যানেজার ক্লডিও রানেইরি ও ইউরো ২০১৬ জয়ী পর্তুগীজ কোচ ফার্নান্দো সান্তোস। জিদান বিশ্বাস করেন এই পুরস্কার জয়ে তার থেকে অভিজ্ঞ অপর দুই কোচই বেশী যোগ্যতা রাখে।

এই পুরস্কারটি জয় করতে না পারলে বিস্মিত হবেন কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে জিদান বলেছেন, না অবশ্যই না, আমি মনে করি অন্য কেউ জিতলেই সেটা বেশী যুক্তিযুক্ত হবে। আমি মাত্রই এই পেশায় এসেছি, এখনো সবকিছুই নতুন। আমাকে কাজ চালিয়ে যেতে হবে। এই পেশায় অনেক চড়াই উতরাই রয়েছে, সেগুলোর অভিজ্ঞতা আমারো হবে। 

নিজের দীর্ঘ ও সফল খেলোয়াড়ি ক্যারিয়ারের কথা বিবেচনা করেই জিদান বিশ্বাস করেন ভবিষ্যতে অনেক কিছুই অপেক্ষা করছে। এখনো নিজেকে আরো পরিনত করার অনেক সময় আছে। তিনি বলেন, এখন আমি আগের থেকে নার্ভাস কম অনুভব করি। আমি নিজের কাজ নিয়ে খুশী। এখনো অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে। কিন্তু ক্লাবের যা লক্ষ্য ছিল তা পূরণ হয়েছে, এতেই আমি খুশী। তারপরেও সব কিছুতেই আমার উন্নতি করতে হবে। এটাই ফুটবল। একজন খেলোয়াড় হিসেবেও আমি এই ধরনের চিন্তাই সবসময় করেছি। ৩৩, ৩৪ বছর বয়সে আমি সবসময়ই উন্নতির চিন্তা করেছি, এখন কোচ হিসেবে এই চিন্তাটা আরো বেশী। তবে আমি একটি বিষয় সবসময়ই বিশ্বাস করি ফুটবলের প্রতি আমার ভালবাসা আছে। আমার মনে হয় সব কোচই প্রায় একই ধরনের চিন্তা করে, এখানে খুব বেশী পার্থক্য নেই। রিয়ালের সাথে প্রথম বছরে আমি অনেক কিছুই অর্জণ করেছি, কিন্তু আমাকে সবকিছুর জন্য প্রতিদ্বন্দ্বীতা করতে হবে। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ