ঢাকা, বৃহস্পতিবার 05 January 2017, ২২ পৌষ ১৪২৩, ০৬ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

পর্ণো ওয়েবসাইট : চাই কঠোর ব্যবস্থা

যুব সমাজের চরিত্র নষ্টের মূল উপাদান পর্ণো ওয়েবসাইট। মোবাইলে ইন্টারনেট চালু করলেই এখন নর ও নারীর অশালীন আচরণ ও অবৈধ সম্পর্ক নিয়ে নানাবিধ গল্প ও কাহিনী দৃশ্যমান। এতো নিকৃষ্ট গল্প ও দৃশ্য ওয়েব সাইটে প্রদর্শিত হচ্ছে যা দেখলে যে কোন সচেতন মানুষের গা শিউরে ওঠার কথা। আর এসব দেখে যুব চরিত্র ক্রমেই অধঃপতনের দিকে ধাবিত হচ্ছে। আর সেদিক খেয়াল করেই বোধ হয় আমাদের টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী একটি যথার্থ উদ্যোগ নিয়েছেন। যাকে সাধুবাদ না জানিয়ে পারা যায় না। একজন মা হিসেবে তিনি সন্তানের ভবিষ্যৎ চিন্তা করেন বলেই গত ২৮ নবেম্বর সচিবালয়ে সভা করে কমিটি গঠন করেছেন পর্ণো ওয়েবসাইটগুলোর তালিকা প্রণয়ন করে এক সপ্তাহের মধ্যে রিপোর্ট করতে। সে অনুযায়ী অশ্লীলতা নিরসনে তিনি এসব বন্ধ করার ব্যবস্থা নেবেন।
বর্তমানে শিক্ষার্থীদের একাংশ ও এক শ্রেণীর মানুষ এসব পর্ণো বা অশ্লীল দৃশ্য দেখে দেখেই শিশু নির্যাতনের মতো অমানবিক কর্মে যেমন উৎসাহী হচ্ছেন তেমনি দেশে জ্বিনা, ব্যভিচার (ধর্ষণ) ক্রমেই বৃদ্ধি পেতে চলেছে। আর এর শিকার হচ্ছে আমাদের মাতৃজাতি।
তথাকথিত প্রেমের যাঁতাকলে খাদিজাদের মতো মেয়েদেরও নির্মম নির্যাতনের শিকার হতে হচ্ছে। রিশাদের দিতে হচ্ছে অকালে জীবন। ঝরে পড়ছে কত পিতা-মাতার আদরের সন্তান।
তাই ইন্টারনেটের অশ্লীলতা বন্ধে প্রতিমন্ত্রী কঠোর পদক্ষেপ নিয়ে একটি মহৎ দৃষ্টান্ত স্থাপন করবেন এবং যুবচরিত্র হেফাজতের মাধ্যমে নোংরা, অশালীন, অশ্রাব্য কিছু শোনা থেকে এ দেশবাসীকে মুক্তি দেবেন সেটাই সবার প্রত্যাশা।
-শামসুল করীম খোকন, ৭/বি, দক্ষিণ বেগুনবাড়ি, তেজগাঁও, ঢাকা-১২০৮।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ