ঢাকা, শনিবার 07 January 2017, ২৪ পৌষ ১৪২৩, ০৮ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ওয়ালটন প্রিমো এক্স সিরিজের নতুন ফ্ল্যাগশিপ ‘এক্স-ফোর প্রো’ বাজারে

  • যুক্ত হয়েছে ফিঙ্গার প্রিন্ট স্ক্যানার ৬৪ জিবি রম

বাজারে এলো ওয়ালটনের নতুন স্মার্টফোন প্রিমো ‘এক্স ফোর প্রো’। এটি প্রিমো ‘এক্স’ সিরিজের নতুন ফ্ল্যাগশিপ সেট। উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন এবং মাল্টি টাস্কিং স্মার্টফোনটিতে রয়েছে সুপার ফাস্ট ফিঙ্গার প্রিন্ট স্ক্যানার। যা ফোনে সংরক্ষিত ব্যক্তিগত সকল তথ্যের সুরক্ষা নিশ্চিত করবে। 

বৃহস্পতিবার ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটনের মেগা প্যাভিলিয়নে নতুন এই ফোনের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। বাণিজ্য মেলায়  ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের পাশাপাশি সারাদেশে সকল ওয়ালটন প্লাজা ও ব্র্যান্ডেড আউলটলেটে  আজ থেকে পাওয়া যাচ্ছে নতুন এই সেট। 

বৃহস্পতিবার সকালে মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক এসএম জাহিদ হাসান (পলিসি, এইচআরএম এন্ড এডমিন), মো. হুমায়ুন কবীর (পিআর এন্ড মিডিয়া), অপারেটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম ও এসএম রেজোয়ান আলম, এডিশনাল ডিরেক্টর আসিফুর রহমান খান (সেল্যুলার ফোন), ফার্স্ট সিনিয়র ডেপুটি ডিরেক্টর মাহমুদুল হাসান হেলাল, মিডিয়া উপদেষ্টা এনায়েত ফেরদৌসসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সিএনসি (কম্পিউটার নিউমেরিক্যালি কন্ট্রোল) মেশিনে প্রক্রিয়াজাতকৃত ৮.২মিমি পুরুত্বের স্লিম এই সেটের হোম বাটনে সুপার ফাস্ট রেসপন্স ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারের সংযোজন করা হয়েছে। যা ০.৩ সেকেন্ডের মধ্যে সেটটি আনলক করতে সক্ষম। এই সেন্সরের মাধ্যমে খুব সহজেই সেটে সংরক্ষিত তথ্য সুরক্ষা পাবে। 

চিলড্রেন মোড সুবিধা এই স্মার্টফোনটির আরেকটি বিশেষত্ব। এর ফলে গেমস বা অন্যান্য মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট ব্যবহারে ছোটদের হাতে গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপস, ফাইল বা ছবি মুছে যাওয়ার আশংকা থাকবে না। চিলড্রেন মোডে শুধু শিশুদের উপযোগী বিভিন্ন মাল্টিমিডিয়া অ্যাপস রাখার সুবিধা থাকায় গুরুত্বপূর্ণ ফাইলগুলো থাকবে নিরাপদ।

জানা গেছে, মাল্টি টাস্কিং সুবিধা ও উন্নত পারফরম্যান্স নিশ্চিতে প্রসেসর হিসেবে ‘এক্স-ফোর প্রো’ তে ব্যবহার করা হয়েছে উচ্চ ক্ষমতার ৬৪বিট সম্পন্ন ২ গিগাহার্জের শক্তিশালী অক্টা-কোর প্রসেসর। স্বাচ্ছন্দ্যে বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার, ইন্টারনেট ব্রাউজিং, থ্রিডি গেমিং এবং দ্রুত ভিডিও লোড ও ল্যাগ-ফ্রি ভিডিও স্ট্রিমিং সুবিধা দিতে রয়েছে দ্রুতগতির ৪ জিবি র‌্যাম। গেমিংয়ে ব্যবহৃত হয়েছে মালি টি-৮৬০ গ্রাফিক্স। এক্স ফোর প্রো’তে আরো রয়েছে ৬৪ জিবি ইন্টারনাল মেমোরি। ফলে অনেক বেশি ভিডিও, ছবি, মিউজিক, অ্যাপসসহ অসংখ্য ফাইল  সংরক্ষণ করা যাবে। ১২৮জিবি পর্যন্ত এক্সটারনাল মেমোরি সাপোর্ট করবে। 

এটি সম্পূর্ণ মেটালিক বডি। রয়েছে সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লের ৫.৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি স্ক্রীন। ডিসপ্লে ২.৫ডি কার্ভড (বাঁকানো) গ্লাস হওয়ায় ছবি হবে জীবন্ত। ডিসপ্লেতে আঘাত ও আঁচর প্রতিরোধের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে চতুর্থ প্রজন্মের কর্নিং গরিলা গ্লাস। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ