ঢাকা, শনিবার 07 January 2017, ২৪ পৌষ ১৪২৩, ০৮ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বড়াইগ্রামে নিখোঁজের একদিন পর বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার

বড়াইগ্রাম (নাটোর) সংবাদদাতা : নাটোরের বড়াইগ্রামে নিখোঁজের একদিন পর শুক্রবার আমিনা বেওয়া (৮৪) নামে এক বৃদ্ধার হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি বড়াইগ্রাম পৌরসভার কালিবাড়ি মহল্লার মৃত নায়েব উল্লাহর দ্বিতীয় স্ত্রী।
এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ নিহতের সৎ ছেলে  এসকেন্দার (৬০), মাওলানা মহসিন আলী (৫৫) ও ইয়াসিন আলী (৫২), নিজ সন্তান ওসমান গণি (৫০) ও ইসাহাক আলী (৪৮), ইসাহাক আলীর স্ত্রী রেণুয়ারা বেগম (৩৮), ছেলে ইমরান হোসেন (১৯) ও মেয়ে ঋতু (১১),  এসকেন্দারের ছেলে আনোয়ার (৩০) ও আশরাফুল (২৫) কে আটক করা হয়েছে।
এলাকাবাসী জানান, আমেনা বেওয়া তার ছোট ছেলে ইসাহাক আলীর সঙ্গে থাকতেন। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা থেকে তিনি নিখোঁজ হন। বিভিন্ন স্থানে খুঁজেও না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা এলাকায় মাইকিং করাসহ বিষয়টি মৌখিকভাবে থানা পুলিশকে জানান। গতকাল শুক্রবার সকালে বাড়ির পাশের মেহগণি বাগানে তার লাশ একটি টিন দিয়ে ঢেকে রেখে অবস্থায় পাওয়ায় যায়। এ সময় দড়ি দিয়ে তার হাত-পা বাঁধা ও কলা গাছের ডাল দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো ছিলো। এছাড়া তার নাক ও কান দিয়ে রক্ত ঝরছিলো। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।
বড়াইগ্রাম থানার ওসি শাহরিয়ার খান জানান, এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদের পাশাপাশি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। পারিবারিক কোন কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ