ঢাকা, শনিবার 07 January 2017, ২৪ পৌষ ১৪২৩, ০৮ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বলিউড অভিনেতা ওম পুরির চিরবিদায়

৬ জানুয়ারি, এনডিটিভি/বিবিসি : গতকাল শুক্রবার সকালে মুম্বাইয়ের বাসায় নিজের বিছানায় ৬৬ বছর বয়সী এ অভিনেতাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন বলে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোর খবর।
চার দশক ধরে নানা ধরনের চরিত্রে দাপটের সঙ্গে অভিনয় করে আসা ওমপুরিকে খ্যাতির শীর্ষে পৌঁছে দিয়েছিল তার ভিলেন চরিত্রের অভিনয়। কেবল ভারতীয় মূল ধারার চলচ্চিত্রে নয়, বিকল্প ধারার সিনেমাতেও তার বলিষ্ঠ অভিনয় দেখেছে ভারতীয় উপমহাদেশের দর্শক। হলিউড ও ব্রিটিশ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেও তিনি খ্যাতি পেয়েছেন।
ভারতে পাকিস্তানী শিল্পীদের কাজ করার ওপর নিষেধাজ্ঞার সমালোচনা করে বিতর্কে জড়ানোর পর গতবছর অক্টোবরে অভিনয় ছেড়ে দেওয়ার ঘোষণা দেন পদ্মশ্রী পুরস্কার পাওয়া এই চলচ্চিত্র তারকা।
হরিয়ানার আমবালায় জন্ম নেওয়া ওমপুরি পুনের ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন ইনস্টিটিউটের স্কুল অব ড্রামা থেকে ১৯৭৩ সালে ডিগ্রি নেন। সেখানে তার সহপাঠী ছিলেন আরেক জনপ্রিয় অভিনেতা নাসিরউদ্দিন শাহ।
তিন বছর পর মারাঠি চলচ্চিত্র ঘাসিরাম কোতোয়াল দিয়ে পর্দায় অভিষেক হয় ওম পুরির; নাট্যকার বিজয় টেন্ডুলকরের মারাঠি নাটকের ভিত্তিতে নির্মিত হয়েছিল চলচ্চিত্রটি।
এরপর আক্রোশ, জানে ভি দো ইয়ারো, অর্ধ সত্য, পার, মাচিস, মিরচ মাসালা, ধারাভির মতো দর্শকপ্রিয় বহু সিনেমা ওম পুরিকে খ্যাতির শীর্ষে পৌঁছে দেয়।
ভারতীয় চলচ্চিত্র বোদ্ধাদের মতে, নাসিরুদ্দিন শাহ, ওম পুরি, শাবানা আজমী ও স্মিতা পাতিলের হাত ধরেই আশির দশকে ভারতীয় চলচ্চিত্রের গতিপথ পাল্টে যায়।
ওম পুরি ১৯৯০ সালে ব্রিটিশ নির্মাতা রিচার্ড অ্যাটেনবরোর ‘গান্ধী’ চলচ্চিত্রে অতিথি চরিত্রে অভিনয় করেন। ওই বছরই ভারত সরকার তাকে পদ্মশ্রী পুরস্কারে ভূষিত করে।
ব্রিটিশ চলচ্চিত্র সিটি অফ জয়, ইস্ট ইজ ইস্ট ও টিভি সিরিজ জুয়েল ইন দ্য ক্রাউন এবং হলিউডের সিটি অব জয়, উলফ, দ্য গোস্ট অ্যান্ড দ্য ডার্কনেস, হান্ড্রেড ফুট জার্নি ও ইন্ডিয়ানা জোনসের টেম্পল অব ডুমে অভিনয় ওম পুরিকে পশ্চিমের দর্শকদের কাছেও পরিচিত করে তোলে। জুলিয়া রবার্টস ও টম হ্যাঙ্কসের সঙ্গে চার্লি উইলসন ওয়ার চলচ্চিত্রে জেনারেল জিয়া উল হকের চরিত্রে অভিনয় করে সমালোচকদের প্রশংসা কুড়ান তিনি।
জনপ্রিয় এ অভিনেতার মৃত্যুতে শোক জানিয়ে টুইট করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
সহঅভিনেতা অনুপম খের, চিত্রনির্মাতা করন জোহর, মাধুর ভা-ারকার ও সুজিত সরকারও অভিনেতা ওম পুরির মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন বলে এনডিটিভি জানিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ