ঢাকা, বুধবার 11 January 2017, ২৮ পৌষ ১৪২৩, ১২ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

আওয়ামী লীগ নেতা আহাদ দ্বিতীয় দফা রিমান্ডে

স্টাফ রিপোর্টার : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু মন্দিরে ভাংচুর ও বাড়িঘরে হামলা-লুটপাটে জড়িত অভিযোগে গ্রেফতার আওয়ামী লীগ নেতা শেখ আবদুল আহাদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দ্বিতীয় দফা রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার বিকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম শফিকুল ইসলাম তার ফের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বলে নাসিরনগর থানা উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. ইশতিয়াক আহমেদ জানান।

গত ১ জানুয়ারি একই ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এ আওয়ামী লীগ নেতাকে এক দিনের রিমান্ডে পাঠায় আদালত। আবদুল আহাদ নাসিরনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সদর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান। 

গত ২৭ ডিসেম্বর উপজেলা সদরের ঘোষপাড়া এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। নাসিরনগরে হিন্দু পল্লীতে হামলা চালানোর ঘটনায় তার সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে গ্রেপ্তারের পর জানায় পুলিশ। এসআই ইশতিয়াক বলেন, আবদুল আহাদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আবার সাত দিনের রিমান্ড আবেদন জানিয়ে আদালতে পাঠায় পুলিশ। পরে শুনানি শেষে বিচারক দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ফেইসবুকে ধর্ম অবমাননার অভিযোগ তুলে গত ৩০ অক্টোবর নাসিরনগরে ১৫টি মন্দিরে ভাংচুর এবং অন্তত দেড়শ বাড়িঘরে হামলা লুটপাট চালানো হয়।

এরপর ৪ নবেম্বর ও ১৩ নবেম্বর নাসিরনগর উপজেলা সদরে হিন্দু সম্প্রদায়েরর অন্তত ছয়টি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়। এ ঘটনায় দেশে বিদেশে ব্যাপক সমালোচনা হয়। এদিকে আবদুল আহাদের মুক্তি চেয়ে পুলিশের কাছে নাসিরনগর হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত ২০ ব্যক্তি আবেদন করেছেন বলে সোমবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইকবাল হোসাইন জানান।

হামলার সময় আহাদসহ আরও কয়েকজন তাদের ঘর-বাড়ি ও মন্দির রক্ষা করার জন্য প্রাণপণ চেষ্টা করেছেন এবং আক্রমণকারীদের দ্বারা নিজেও আহত হয়েছেন বলে ক্ষতিগ্রস্তরা আবেদনে উল্লেখ করেছেন বলে জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ