ঢাকা, মঙ্গলবার 17 October 2017, ২ কার্তিক ১৪২8, ২৬ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

কেউ ৫০ শতাংশের বেশি পেনশন তুলতে পারবেন না: অর্থমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক: অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, ভবিষ্যতে কেউ ৫০ শতাংশের বেশি তুলতে পারবেন না।তার মতে, শতভাগ পেনশনের টাকা তুলে ফেললে পেনশনভোগিরা ক্ষতিগ্রস্ত হন এবং সরকারী সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হন।

বুধবার সচিবালয়ে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত্র মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, অনেকে শতভাগ পেনশনের টাকা তুলে নিয়েছেন, এটা ভুল সিদ্ধান্ত। পেনশন অবসরকালীন সময়ের সিকিউরিটি। যারা শতভাগ তুলেছে, তারা সবাই ডুবেছেন। আমরা নতুন নতুন নিয়ম করছি, ফলে তারা কোন সুবিধা পায় না। যারা পেনশনের শতভাগ অর্থ তুলেছেন, তারা কোনো সুবিধা পাচ্ছেন না। ভবিষ্যতে যাতে এটা না হয়, সেজন্য অর্ডার করেছি, কেউ ৫০ শতাংশের বেশি তুলতে পারবেন না।

 বেসরকারি খাতে অবসরে যাওয়া চাকরিজীবীদের জন্য কিছু করবেন কি না, জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, হ্যাঁ, সেটাও করা হবে, কিন্তু একটু সময় লাগবে। আর অবসর ভাতাভোগীদের জন্য সংশি­ষ্ট কোম্পানিগুলোরও দায়বদ্ধতা রয়েছে। তাই এটা নিয়ে আমরা সংশ্লি­ষ্ট সবপক্ষের সঙ্গে আলোচনায় বসবো। এই বিষয়টি নিয়ে সংশি­ষ্টদের সঙ্গে আগামী বাজেটেরে আগেই বসা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

প্রসঙ্গত, সরকারি কর্মচারীরা পেনশনের পুরো টাকা আর একবারে তুলে নিতে পারবেন না। সর্বোচ্চ অর্ধেক তুলে নিতে পারবেন। বাকি অর্ধেক নিতে হবে তাদের মাসে মাসে। আগামী ১ জুলাই থেকে এই বিধান কার্যকর হবে। গত মঙ্গলবার এ বিষয়ে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ। পেনশনধারীদের আর্থিক ও সামাজিক সুরক্ষা নিশ্চিত করার স্বার্থে বিধানটি চালু করা হয়েছে বলে প্রজ্ঞাপনে উলে­খ করা হয়। অর্থাত্ এ বছরের ৩০ জুন বা তারপর যাদের অবসর-উত্তর ছুটি শেষ হবে, তারাই নতুন নিয়মের আওতায় আসবেন। তবে পেনশনার বা পারিবারিক পেনশনাররা মাসিক পেনশনের ওপর ৫ শতাংশ হারে বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট পাবেন। এটাও কার্যকর হবে আগামী ১ জুলাই থেকে। 

বর্তমানে কেউ চাইলে পুরো টাকা তুলে নিয়ে যেতে পারেন, আবার মাসে মাসেও নিতে পারেন। অর্থাত্ দুটি বিকল্পই খোলা আছে। নতুন বিধানের মাধ্যমে পেনশনের ৫০ শতাংশ মাসিক ভিত্তিতে নেওয়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ