ঢাকা, বৃহস্পতিবার 12 January 2017, ২৯ পৌষ ১৪২৩, ১৩ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বয়স্ক ভাতা কার্ডপ্রতি দু’শ’ টাকা নিলেন ইউপি সদস্যা

সৈয়দপুর, (নীলফামারী) সংবাদদাতা: নীলফামারীর সৈয়দপুরে কামারপুকুর ইউনিয়নে গত রোববার দুপুরে বয়স্ক ভাতার কার্ড প্রতি ২০০ টাকা নেয়ার অভিযোগ উঠেছে মহিলা সদস্যা বিরুদ্ধে।
সরেজমিনে কামারপুকুর ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে সকাল থেকে অগ্রণী ব্যাংক সৈয়দপুর বাজার শাখার  কর্মকর্তা নুরুন্নবীরা বয়স্ক ভাতা প্রাপ্তিদের হাতে মাসিক অর্থ বুঝিয়ে দেন। এখানে বাধ সাজেন (৪, ৫, ৬ ওয়ার্ড সংরক্ষিত) মহিলা সদস্যা কদর বানু।
তিনি প্রত্যেক বয়স্ক ভাতা প্রাপ্তিদের কাছ থেকে ২০০ থেকে ৩০০ টাকা দাবী করেন। অসহায় বৃদ্ধা ব্যক্তিরা মহিলা সদস্যার রোষানল থেকে বাচতে বাধ্য হয়ে ২০০ থেকে ৩০০ টাকা দিচ্ছেন।
এ প্রতিবেদকের সামনে খাদিজা বেগম (৬৫) কাছ থেকে ২০০ টাকা নেন মহিলা সদস্যা। সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে ওই মহিলা সদস্যার কাছে জানতে চাওয়া হয় কেন তিনি এই টাকা নিলেন। মহিলা সদস্যা কদর বানু বলেন ওরা খুশি হয়ে আমাকে চা মিষ্টি খাওয়ার জন্য আমাকে টাকা দিয়েছেন। ওই মহিলা সদস্যা দম্ভ করে বলেন যে পেপার পত্রিকায় লেখালেখি করে আমার কেউ কিছু করতে পারবে না।
এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন ফেয়ার প্রাইস চাউলের কার্ড দেয়ার নাম করে দুস্থ অসহায় মানুষদের কাছ থেকে হাজার হাজার টাকা নেয়ার অভিযোগ রয়েছে।
এ ব্যাপারে কামারপুকুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রেজাউল করিম লোকমান বলেন এমন ঘটনা যদি ঘটে থাকে তাহলে তার দায় ভার পুরোটাই ওই মহিলা সদস্যার উপর বর্তাবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ