ঢাকা, বৃহস্পতিবার 12 January 2017, ২৯ পৌষ ১৪২৩, ১৩ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ইবির বিভিন্ন ইউনিটে ৪৪৯টি আসন খালি

ইবি সংবাদদাতা : ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ¯œাতক (সম্মান) ১ম বর্ষে মেধা তালিকায় ভর্তি শেষে বিভিন্ন ইউনিটে ৪৪৯টি আসন শূন্য রয়েছে। আগামী ১৬ জানুয়ারি থেকে আপেক্ষামাণ তালিকা থেকে সাক্ষাৎ গ্রহণ করা হবে। 

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয় ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের মেধা তালিকায় ভর্তি শেষে বিভিন্ন ইউনিটে ৪৪৯টি আসন শূন্য রয়েছে। তন্মেধ্যে ধর্মতত্ত্ব অনুষদ ভুক্ত ‘এ’ ইউনিটের আল-কুরআন এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে ১টি, দাওয়াহ এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে ১৫টি ও আল-হাদিস এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে ২টি আসন খালি রয়েছে। মাননিক ও সমাজ বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের আরবী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগে ৭২টি, বাংলা বিভাগে ২১টি, ইংরেজি বিভাগে ৯টি, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে ২৫ ও ফোকলোর স্টাডিজ বিভাগে ২৭টি আসন শূন্য রয়েছে। একই অনুষদভুক্ত ‘সি’ ইউনিটের অর্থনীতি বিভাগে ১২টি, লোক প্রশাসন বিভাগে ২৫টি ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে ৩৩টি আসন খালি রয়েছে। আইন ও শরীয়াহ অনুষদভুক্ত ‘এইচ’ ইউনিটের আইন ও মুসলিম বিধান বিভাগে ১৯টি ও আল-ফিকহ্ বিভাগে ২৯টি আসন খালি রয়েছে। ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদভুক্ত ‘ডি’ ইউনিটের ফলিত রসায়ন ও কেমিকৌশল বিভাগে ৪টি, বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ১১টি, ফলিত পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগে ২৪টি আসন খালি রয়েছে। একই অনুষদভুক্ত ‘ই’ ইউনিটের ফলিত পদার্থবিজ্ঞান, ইলেক্ট্রনিক্স এ- কমিউনিকেশন বিভাগে ২৮টি, কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ৫টি, ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ৫টি আসন শূন্য রয়েছে। একই অনুষদভুক্ত ‘এফ’ ইউনিটের গণিত বিভাগে ৪টি ও পরিসংখ্যান বিভাগে ৩২টি আসন শূন্য রয়েছে। এছাড়াও ব্যাবসায় প্রশাসন অনুষদভুক্ত ‘জি’ ইউনিটের হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগে ২টি, ব্যবস্থাপনা বিভাগে ২৯টি, ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগে ২টি ও মার্কেটিং বিভাগে ১৩টি আসন শূন্য রয়েছে। তবে বিভাগ পরিবর্তনের ফলে সংশিষ্ট বিভাগের শূন্য আসন পরিবর্তন হতে পারে। আগামী ১৬ জানুয়ারী থেকে আপেক্ষমান তালিকা থেকে ভর্তি সাক্ষাৎকার নেয়া হবে।

ইবির বঙ্গবন্ধু হলের নতুন প্রভোস্ট আজাদ : ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের নতুন প্রভোস্ট হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক শাহাদাৎ হোসেন আজাদ। তিনি সাবেক প্রভোস্ট প্রফেসর ড. অশোক কুমার চক্রবর্তীর স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন। আগামী এক বছরের জন্য তাকে এ পদে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। নিয়োগের বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার অফিস সূত্রে জানা গেছে। 

বুধবার সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু হলের প্রভোস্টের কার্যালয়ে নতুন প্রভোস্টের দায়িত্ব গ্রহন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রভোস্টকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়। পরিসংখ্যান বিভাগের প্রভাষক মোঃ মতিয়ার রহমান মোল্লার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয় সাবেক প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. মোঃ কামাল উদ্দিন, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন, অর্থনীতি বিভাগের প্রফেসর ড. মোঃ আব্দুল মুঈদ প্রমুখ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রভোস্ট কাউন্সিলের সভাপতি ও শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট প্রফেসর ড. মোঃ মিজানুর রহমানসহ বিভিন্ন হলের প্রভোস্টগণ, হলের আবাসিক শিক্ষক-কর্মকর্তাসহ ছাত্র সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিল। 

নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রভোস্ট শাহাদাৎ হোসেন আজদ বলেন, ‘সকলের সহযোগিতায় হলের দায়িত্ব পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পালন করার চেষ্টা করব। শিক্ষার্থীদের স্বার্থে আমার সকল প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ