ঢাকা, রোববার 15 January 2017, ২ মাঘ ১৪২৩, ১৬ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মুশফিক থাকলে ওডিআই ও টি-২০ তে ভিন্ন কিছু হতো -রস টেইলর

স্পোর্টস ডেস্ক : বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়েলিংটন টেস্টে নামার আগে নিউজিল্যান্ড ব্যাটসম্যান রস টেইলরকে চোখের সমস্যায় ভুগতে হয়েছিল। পরে অস্ত্রোপচারও করান তিনি। তবে এখন পুরোপুরি সুস্থ হয়েই মাঠে নেমেছেন অভিজ্ঞ এ ব্যাটসম্যান। টাইগারদের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে তার চোখ দিয়েই দেখেছেন প্রতিপক্ষের কীর্তি। যা দেখে প্রশংসা না করে পারেননি তিনি। টাইগাররা প্রথম ইনিংসে নিজেদের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৯৫ রান করে আট উইকেট হারিয়ে ইনিংস ঘোষণা করে। যেখানে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ২১৭ রান করেন সাকিব আল হাসান। অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে গড়েন রেকর্ড ৩৫৯ রানের জুটি। যেন গত ওডিআই বিশ্বকাপের ধারাবাহিকতাই ধরে রেখেছে সফরকারীরা। তৃতীয় দিনের খেলা শেষে বাংলাদেশের প্রশংসা করে টেইলর জানান, ‘এটা ছিল দুর্দান্ত। তারা দেশের বাহিরে পর্যাপ্ত ক্রিকেট না খেলেও অসাধারণ করছে। দেশের বাহিরে বেশি খেললে আরও ভালো করবে তারা।’ বাংলাদেশের হয়ে ১৫৯ রানে দারুণ একটি ইনিংস খেলা মুশফিক সম্পর্কে টেইলর বলেন, ‘বাংলাদেশ ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে খুব ক্লোজ ম্যাচ খেলেছে। তবে মিডলঅর্ডারে মুশফিককে তারা মিস করে। দল তার ওপর ভরসা রাখে। সে থাকলে ওডিআই ও টি-২০তে ভিন্ন কিছু হতে পারতো।’ পরে সাকিব ও দলের স্পিনারদের প্রসঙ্গে ডানহাতি ব্যাটসম্যান টেইলর আরও যোগ করেন, ‘দীর্ঘ সময় ধরে সাকিব বিশ্বমানের তকমা গায়ে মেখে রেখেছে। আর স্পিনে তরুণ স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ ভালো করেছে।
আমরা আশাই করিনি মিরাজকে দিয়ে বোলিংয়ে ওপেন করানো হবে। এখানে বল করা এত সহজ না। আমাদের বোলাররাও এখানে ভুগেছে। তবে বাংলাদেশের ক্রিকেটে অসাধারণ পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে। তারা দেশের বাইরে যত বেশি খেলবে ততই ভালো করবে।’ কিউই ব্যাটসম্যান হিসেবে এদিন টেইলরের সামনে দারুণ একটি রেকর্ডের হাতছানি ছিল। তিন অঙ্গের ঘরে যেতে পারলে তিনি গড়তে পারতেন কিংবদন্তি মার্টিন ক্রোর সমান দেশের হয়ে সর্বোচ্চ ১৭টি সেঞ্চুরির রেকর্ড। কিন্তু ৫১ বলে ৪০ রান করে কামরুল ইসলাম রাব্বির বলে আউট হন তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ