ঢাকা, সোমবার 16 January 2017, ৩ মাঘ ১৪২৩, ১৭ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

চতুর্থ দিন শেষে ১২২ রানে এগিয়ে বাংলাদেশ

  • বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ৫৯৫/৮ (১৫২ ওভার) ইনিংস ঘোষণা।
  • নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংস : ৫৩৯/১০ (১৪৮.২ ওভার)।
  • বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস--৬৬/৩ (১৮.৩ ওভার)

স্পোর্টস রিপোর্টার : ওয়েলিংটনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে প্রথম ইনিংসে ৫৬ রানের লিড পেয়েছে বাংলাদেশ। আর টেস্টের চতুর্থ দিন শেষে বাংলাদেশ এগিয়ে আছে ১২২ রানে। প্রথম ইনিংসে ৮ উইকেটে ৫৯৫ রানের বিশাল পাহাড় গড়ে বাংলাদেশ ইনিংস ঘোষণা করে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৫৩৯ রানে অলআউট হয় স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। ফলে ৫৬ রানের লিড নিয়েছে বাংলাদেশ। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে দিন শেষে ৬৬ র্না করতেই বাংলাদেশ হারায় তিন উইকেট। এছাড়া রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠের বাইরে যান ইমরুল কায়েস। ফলে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটা ভালো হলেও শেষ বিকেলে স্কোরটা ঠিক বড় করতে পারেনি টাইগাররা। ৬৬ রান করতেই হারায় তিন উইকেট। তাই শেষ দিনে আজ অনেক কিছুই ঘটতে পারে এই টেস্টে। 

প্রথম ইনিংসে ৫৬ রানে লিড নেয়া বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংসে ভালো করার টার্গেট নিয়ে ব্যাট করতে নামে। দ্বিতীয় ইনিংসেও ভালোই শুরু করে বাংলাদেশ। তবে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারেননি। ১৩তম ওভারে চোট পেয়ে ২৪ রানে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠ ছেড়েছেন ইমরুল। এরপরই উইকেট হারাতে থাকে বাংলাদেশ। নিল ওয়েগনারের ওভারের পঞ্চম বলে একটি সিঙ্গেল রান নিতে গিয়ে পড়ে যান কায়েস। এর ফলে তিনি সোজা হয়ে দাঁড়াতেই পারছিলেন না। পরে তাকে স্ট্রেচারে করে মাঠ থেকে বের করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তার বদলে মাঠে নামেন মুমিনুল হক। আর পরের ওভারেই মিচেল স্যান্টনারের বলে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেছেন তামিম। আউট হওয়ার আগে ২টি চারের মারে ২৫ রান করেছেন এই ওপেনার। মুমিনুলের সঙ্গে এখন উইকেটে যোগ দিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ। তবে এই ইনিংসেও উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখতে পারেননি তিনি। মাত্র পাঁচ রান যোগ করেই সাজঘরে ফিরেছেন তিনি। মাহমুদউল্লাহর বিদায়ে উইকেটে আসেন মেহেদি হাসান মিরাজ। প্রথম ইনিংসের মতো এই ইনিংসওে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। ব্যক্তিগত ১ রানে রান আউটের শিকার হয়ে ফিরেছেন তিনি। চতুর্থ দিনে বাংলাদেশ ৩ উইকেট হারিয়ে করে ৬৬ রান। ফলে দিন শেষে তাদের লিড দাঁড়িয়েছে ১২২ রান। কিউইদের হয়ে ১টি করে উইকেট তুলে নিয়েছেন স্যান্টনার ও ওয়েগনার। এর আগে গতকাল চতুর্থ দিনেও দারুণভাবেই খেলেছে নিউজিল্যান্ড। সকালে ৩ উইকেটে ২৯২ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই দৃঢ়তার সঙ্গেই খেলেছেন ল্যাথাম ও নিকোলস। পরে নিকোলাসকে ফিরিয়ে এ জুটি ভাঙেন সাকিব। আউট হওয়ার আগে নিকোলাস করেন ৫৩ রান। আর তাদের জুটি থেকে দলে আসে ১৪২ রান। কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ব্যাট করতে নেমে ১৪ রান করে আউট হন শুভাশিস রায়ের বলে। অন্যদিকে ডাবল সেঞ্চুরির পথে হাঁটছিলেন ল্যাথাম। সেই সম্ভাবনার লাগাম টেনে ধরেন সাকিব। ল্যাথামকে ব্যক্তিগত ১৭৭ রানে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন টাইগার অলরাউন্ডার। ফেরার আগে ১৮ চার ও ১ ছয়ে ৩২৯ বলের ইনিংস সাজিয়েছেন কিউই ওপেনার। এছাড়া দলের হয়ে বিজে ওয়াটলিং ৪৯ ও মিচেল স্যান্টনার ৭৩ রান করেন। বাংলাদেশের হয়ে তিনটি উইকেট নিয়েছেন কামরুল ইসলারম রাব্বি এবং দুটি করে উইকেট তুলে নিয়েছেন সাকিব, মাহমুদউল্লাহ ও শুভাশিস। আর একটি উইকেট পেয়েছেন তাসকিন আহমেদ। এর আগে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করে বাংলাদেশ ৮ উইকেটে ৫৯৫ রান সংগ্রহ ইনিংস ঘোষণা করে। এ বিশাল সংগ্রহের পেছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন বাংলাদেশের অভিজ্ঞ দুই খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান (২১৭) ও মুশফিকুর রহিম (১৫৯)। সাকিব নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন আর মুশফিক করেছেন সেঞ্চুরি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ