ঢাকা, বুধবার 18 January 2017, ৫ মাঘ ১৪২৩, ১৯ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বিমান থেকে ট্রেনে উঠেই খুন হলেন প্রবাসী শফিকুল

স্টাফ রিপোর্টার: মালয়েশিয়া থেকে দেশে ফিরলেও স্বজনদের কাছে যাওয়া হলো না প্রবাসী শফিকুল ইসলামের (৩৮)। ঢাকার বিমানবন্দর স্টেশন থেকে ট্রেনে চড়ে নিজ এলাকা সিরাজগঞ্জ যাওয়ার পথে ডাকাতরা মালামাল লুট করে চলন্ত ট্রেন থেকে তাকে ফেলে হত্যা করেছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে রেলওয়ে পুলিশ গাজীপুর মহানগরের হায়দারাবাদ এলাকায় ঢাকা-রাজশাহী রেলরুটের রেল লাইনের পাশ থেকে তার মরদেহটি উদ্ধার করে।

টঙ্গী রেলওয়ে জংশন ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলাউদ্দিন ও গাজীপুর সিটি করপোরেশনের স্থানীয় কাউন্সিলর মাসুদুল হাসান বিল্লাল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ সময় তার সঙ্গে একটি ব্যাগ পাওয়া গেছে। সঙ্গে থাকা পাসপোর্ট থেকে এ পরিচয় পাওয়া গেছে বলে জানান গাজীপুর সিটি করপোরেশনের স্থানীয় কাউন্সিলর মাসুদুল হাসান বিল্লাল। নিহত শফিকুল ইসলাম সিরাজগঞ্জ সদরের মাঝুয়াইল গ্রামের আলতাফ হোসেন ছেলে। পাসপোর্টের তথ্য অনুযায়ী, তিনি সোমবার রাত ৭টার দিকে কুয়ালালামপুর বিমানবন্দর থেকে দেশের উদ্দেশ্যে বিমানে চড়েন। 

স্থানীয় কাউন্সিলর ও এলাকাবাসীর ধারণা, তিনি সোমবার রাতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামেন। পরে বিদেশ থেকে আনা মালামাল নিয়ে ট্রেনে চড়ে বাড়ি যাওয়ার পথে ডাকাতদের কবলে পড়েন। ডাকাতরা তার মালামাল লুট করে তাকে হত্যার পর হায়দারাবাদ এলাকায় ট্রেন থেকে ফেলে দেয়। স্থানীয়রা গতকাল মঙ্গলবার সকালে রেল লাইনের পাশে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে তাকে (কাউন্সিলর) এবং পুলিশকে খবর দেয়। এলাকাবাসী লাশের পাশ থেকে একটি ব্যাগও উদ্ধার করে। পুলিশ ওই ব্যাগ থেকে শফিকুল ইসলাম এবং তার মালয়েশিয়ান স্ত্রী সিতি হাজার বিনতির (ঝওঞও ঐঅঔঅজ ইওঘঞও) দুটি পাসপোর্ট উদ্ধার করে। পাসপোর্টে থাকা মোবাইল ফোন নম্বরে যোগাযোগ করে তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে।

গাজীপুর সিটি কাউন্সিলর বিল্লাল জানান, খবর পেয়ে শফিকুলের স্বজনরা ঘটনাস্থলে এসেছেন। শফিকুলের মা রাজু বালা বেগমের বরাত দিয়ে কাউন্সিলর আরও জানান, ২০০৭ সালে চাকরির উদ্দেশ্যে শফিকুল মালয়েশিয়া যান। সেখানে গিয়ে তিনি মালয়েশিয়ান এক নারীকে বিয়ে করেন। সোমবার সফিকুল মালয়েশিয়া থেকে তার স্ত্রীর কাগজপত্র ঠিকঠাক করতে বাংলাদেশে ফিরেন। তিনি ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নেমে বিমানবন্দর স্টেশন থেকেই ট্রেনে উঠে সিরাজগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওনা হন। গতকাল সকালে হায়দরাবাদ এলাকায় রেলপথের পাশে তার লাশ পাওয়া যায়। টঙ্গী রেলওয়ে জংশন ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলাউদ্দিন জানান, খবর পেয়ে বেলা ১১টার দিকে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার গলায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজের (ঢামেক) মর্গে পাঠানো হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ