ঢাকা, বুধবার 18 January 2017, ৫ মাঘ ১৪২৩, ১৯ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

পাথরঘাটা (বরগুনা) সংবাদদাতা : বরগুনার পাথরঘাটায় রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় হয়রানি মুলক অসত্য মামলার প্রতিবাদে গত ১২ জানুয়ারি পাথরঘাটা প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মামলার আসামীদের পক্ষে পাথরঘাটা কলেজ শাখার ছাত্রলীগ সভাপতি,সাধারণ সম্পাদকসহ কলেজ ছাত্রলীগের নেতা-কর্মিরা।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত ও মৌখিক অভিযোগ তুলে পাথরঘাটা কলেজ শাখার ছাত্রলীগ সভাপতি,রুহি আনান দানিয়াল ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন একটি মারামারির ঘটনাকে কেন্দ্রকরে এবং প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করতে একটি প্রভাবশালি রাজনৈতিক মহল মরিয়া হয়ে মাঠে নামছেন নিজেদের ফায়দা লুটতে।
তারা ওই ঘটনায় প্রতিহিংসামুলক পাথরঘাটা পৌর পরিষদের প্যানেল মেয়র-১ মোস্তাফিজুর রহমান সোহেলসহ ১৩জনকে আসামী করে চাঁদাবাজীসহ বিভিন্ন অপরাধের কথা উল্লেখ করে ৫জানুয়ারি পাথরঘাটা থানায় একটি মিথ্যা ও হয়রানী মুলক মামলা দায়ের করেছেন যার নং ০৯। এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে গত ৪জানুয়ারি উপজেলার মৃতঃ মজিবর রহমানের ছেলে বিএফডিসির মৎস্য ব্যবসায়ী সেলিমকে কেবা কারা মারপিট করে।
পরে ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি রাজনৈতিক মহল মুল ঘটনাকে ভিন্ন খাতে ব্যবহার করতে ৫জানুয়ারি পাথরঘাটা পৌরপরিষদের প্যানেল মেয়র-১ মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল বর্তমার ইউপি সদস্য সলেমান ও কাজি হেলালসহ ১৩জনকে আসামী করে চাঁদাবাজীসহ বিভিন্ন অপরাধের কথা উল্লেখ করে পাথরঘাটা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এব্যাপারে সংবাদ সম্মেলনে পাথরঘাটা কলেজ শাখার ছাত্রলীগ সভাপতি রুহি আনান দানিয়াল বলেন উল্লেখিত মামলার ঘটনার দিন ১নং আসামী মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল এবং ৬ নং আসামী সলেমান পিরোজপুর জেলাধিন নেছারাবাদ হাসপাতালের ৬নং পুরুষ ওয়ার্ডে চিকিৎসাধিন ছিলেন।
মামলার ২নং আসামী রাজু কাজি ৩নং আসামী মো. বেল্লাল উপজেলার আওয়ামী লীগ দলীয় কার্যালয় স্থানীয় এমপি শওকত হাছানুর রহমান রিমন ও পাথরঘাটা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম জিয়াউল হকের সাথে ছিলেন।
এরকম মামলার অন্যান্য আসামীরাও ঘটনার সময় বিভিন্ন স্থানে কর্মরত থাকলেও সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হওয়া জেলা পরিষদ নির্বাচনের জের এবং রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় বরগুনা ও ঝালকাঠি মহিলা আসনের এমপি নাসিমা ফেরদৌসির ক্ষমতার অপব্যবহার করে তার ভাই মোঃ সেফাজ উদ্দিন ভিকটিমের কোন আত্মীয় না হওয়া সত্যেও পাথরঘাটা কলেজ শাখার ছাত্রলীগের নেতা-কর্মি ও প্যানেল মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল বর্তমান ইউপি সদস্য সলেমান ও কাজি হেলালসহ ১৩জনকে আসামী করে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন।
দানিয়াল বলেন প্রশাসন সঠিক ভাবে তদন্ত করলেই ঘটনার আসল অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে এবং উল্লেখিত আসামীরা অবশ্যই নির্দোষ প্রমাণিত হবে। দানিয়াল আরো বলেন যে আমি পাথরঘাটা কলেজ ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে আপনাদের (সাংবাদিকদের) অনুরোধ করছি যে আপনাদের লিখনির মাধ্যমে যেন আসল ঘটনা বেরিয়ে আসে যাতে প্রশাসনের প্রকৃত অপরাধীদের আইনের আওতায় আনতে সহজ হয়।
এ ব্যাপারে পাথরঘাটা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম জিয়া উল হকের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ