ঢাকা, বুধবার 18 January 2017, ৫ মাঘ ১৪২৩, ১৯ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

খুলনার পাইকারি বাজারে শীতকালীন সবজির দাম কম ॥ খুচরা বাজারে দ্বিগুণ

খুলনা অফিস : খুলনাঞ্চলে এবার শীতকালীন সবজি ফলন ভাল হয়েছে। গত বছরের চেয়ে সরবরাহও বেড়েছে। তাই খুলনার পাইকারি কাঁচা বাজারে দামও কম। কিন্তু খুচরা বাজারে দাম চড়া রয়েছে। পাইকারি বাজার থেকে খুচরা বাজারে পণ্যভেদে দাম তিনগুণ পর্যন্ত বেশি রয়েছে। কোন দোকানে মূল্য তালিকাও টাঙানো নেই। খুচরা বিক্রেতারা পাইকারি বাজার থেকে পাকা রশিদ নিতে আগ্রহী নন বলে অভিযোগ পাইকারি বিক্রেতাদের। পণ্য ভেদে কেজিতে খুচরা বিক্রেতারা পাইকারির চেয়ে কেজিতে ২০ থেকে ২৫ টাকা বেশিতে বিক্রি করছেন। খুলনা নগরীর সোনাডাঙ্গা টার্মিনাল সংলগ্ন খুলনা সিটি করপোরেশন নিয়ন্ত্রিত পাইকারি কাঁচা বাজার ও নগরীর কয়েকটি খুচরা বাজারে গিয়ে এ চিত্র দেখা গেছে।
মেসার্স পাকশী বাণিজ্য ভা-ারের মালিক ও কেসিসি’র পাইকারি কাঁচা বাজারের সহ-সভাপতি মো. সেকেন্দার আলী বুলু জানান, গত সপ্তাহ থেকে এ সপ্তাহে শীত সবজির দাম কম। ফলন ভাল হওয়া এবং চাহিদার বেশি সরবরাহ থাকায় দামও কম। পাইকারি বাজারে ওলকপি ৫ থেকে ৬ টাকা, লালশাক ৮ থেকে ১০ টাকা, পালং শাক ৮ থেকে ১০ টাকা, সীম ১০ থেকে ১২ টাকা, খিরই ১৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। কাঁচা ঝাল বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ২৫ টাকা ও বম্বে ঝাল এক পিস ১ টাকা ৩০ পয়সা।
বাজার কমিটির কোষাধ্যক্ষ ও ফজলু বাণিজ্য ভান্ডার এর মো. শেখ অজলুর করিম বলেন, গতবারের তুলনায় এবার শীতকালীনসহ সব সবজির ফলন ভাল হয়েছে। তিনি বলেন, পাইকারি বাজারে গাজর ১০ থেকে ১২ টাকা, চিকন সীম ৮ থেকে ১০ টাকা, চিকন সীম মানভেদে ৬ থেকে ১০ টাকা, মুলা ৩ টাকা, বেগুন ৮ থেকে ১০ টাকা, পাতাকপি (পিস) ৩ থেকে ৪ টাকা, ফুলকপি ৫-৬ টাকা, আলু ( গোল) ৫ থেকে ৬ টাকা, আলু (লম্বা) ১০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করা হচ্ছে। এছাড়া লাউ পিস হিসেবে ১০ থেকে ১৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তিনি বলেন, এবার কৃষকদের দাদন দিয়েছিলাম। কিন্তু দাম না পাওয়ায় কৃষকরা বিপাকে পড়েছেন।
খুচরা বাজারে এখান থেকে কয়েকগুণ বেশি দাম চাওয়ার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যখন প্রশাসন ঝামেলা করে, তখন খুচরা বিক্রেতারা আমাদের কাছ থেকে পাকা রশিদ নেন, এখন ঝামেলা নেই তাই পাকা রশিদ দিলেও নিতে চান না।
বসুন্দিয়া বাণিজ্য ভান্ডারের মালিক মো. এনামুল হক জানান, গত সপ্তাহে সবজির দাম আরও কমছিল। এখন একটু বেড়েছে। ফুলকপি ৮ থেকে ১০ টাকা, মুলা ২-৩ টাকা ও ওলকপি ৫ টাকা বিক্রি হচ্ছে বলে তিনি জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ