ঢাকা, মঙ্গলবার 24 January 2017, ১১ মাঘ ১৪২৩, ২৫ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বিতর্কচর্চা জ্ঞান অন্বেষণে সমস্যার যৌক্তিক সমাধানে পৌঁছাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে

চট্টগ্রাম অফিস : আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (আইআইইউসি)’র ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ.কে.এম আজহারুল ইসলাম বলেছেন, বিতর্কচর্চা জ্ঞান অন্বেষণে এবং কোন সমস্যার যৌক্তিক সমাধানে পৌঁছাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। বিতর্ক মানুষকে পরিশীলিত করে। রোববার সকালে আইআইইউসি’র স্টুডেন্ট এ্যাফেয়ার্স ডিভিশন (স্ট্যাড) আয়োজিত আন্তঃবিভাগীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভিসি প্রফেসর ড. এ.কে.এম আজহারুল ইসলাম এ অভিমত ব্যক্ত করেন। ফার্মেসি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এবং আন্তঃবিভাগীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতা কমিটির আহ্বায়ক মোঃ মোমিনুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই আয়োজনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রতিযোগিতার বিচারক প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির প্রভাষক সাইফুদ্দিন মুন্না এবং জাতীয় বিতার্কিক ও বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ মাসুদ রানা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, স্টুডেন্ট এ্যাফেয়ার্স ডিভিশন (স্ট্যাড) এর পরিচালক আ.জ.ম. ওবায়েদুল্লাহ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন স্ট্যাড এর অতিরিক্ত পরিচালক কবি ও গীতিকার চৌধুরী গোলাম মাওলা। প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইআইইউসি ভিসি প্রফেসর ড. এ.কে.এম আজহারুল ইসলাম বলেন, বিতর্কের ক্ষেত্রে আক্রমণ জ্ঞানীর লক্ষণ নয়। আক্রমণাত্মক মনোভাব একটি সুন্দর ও গ্রহণযোগ্য সিদ্ধান্তে আসার পথকে রুদ্ধ করে দেয়। এই নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি প্রজ্ঞা ও শিক্ষার প্রতিফলন ঘটায় না। ভাল বিতার্কিক ও বক্তা হওয়ার জন্য সাহস অর্জনের উপর গুরুত্বারোপ করে তিনি আরও বলেন, জ্ঞান ও সাহসের সমন্বয়ে যে কোন চ্যালেঞ্জকে মোকাবেলা করা যায়। অনুষ্ঠানে বিতর্ক প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন, রানার আপ ও শ্রেষ্ঠ বক্তার মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধান অতিথি আইআইইউসি ভিসি প্রফেসর ড. এ.কে.এম আজহারুল ইসলাম। প্রতিযোগিতায় চূড়ান্ত পর্বে ছাত্রদের মধ্যে চ্যাম্পিয়ন হয় ইলেকট্রিকাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগ এবং রানার্স আপ হয় সায়েন্সেস অব হাদীস এন্ড ইসলামিক স্টাডীজ বিভাগ। ছাত্রীদের মধ্যে চ্যাম্পিয়ন হয় কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগ এবং রানার্স আপ হয় আইন বিভাগ। ফাইনালে শ্রেষ্ঠ বক্তা নির্বাচিত হন ছাত্রদের মধ্যে রাসেল এবং ছাত্রীদের মধ্যে কাজী রিফা নূর।

আইআইইউসি’র ফার্মেসি বিভাগের কর্মশালা অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (আইআইইউসি) এর ফার্মেসি বিভাগের কর্মশালা ব্যাপক অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে আজ সম্পন্ন হয়েছে।  গত শনিবার আইআইইউসি’র সম্মেলন কক্ষে আইআইইউসি’র ফার্মেসি বিভাগের আয়োজনে "সায়েন্টেফিক ম্যানুস্ক্রিপ্ট রাইটিং” শীর্ষক এক কর্মশালায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন চট্টগ্রাম বায়োকেমিস্ট্র এন্ড মলিকুলার বায়োলজির সহযোগী অধ্যাপক ড. আতিয়ার রহমান। আইআইইউসি’র ফার্মেসি বিভাগের প্রধান মোঃ মাসুদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে বক্তব্য রাখেন ফার্মেসি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোঃ আবু সাঈদ, সহকারী অধ্যাপক যথাক্রমে মোঃ মোমিনুর রহমান, মোঃ সেকান্দর আলী, মোঃ এ টি এম মোস্তফা কামাল এবং প্রভাষক মোঃ জসিমউদ্দিন, মোঃ হযরত আলী, মোঃ আলি রেজা। মূল প্রবন্ধে ড. আতিয়ার রহমান বলেন, ম্যানুস্ক্রিপ্ট রাইটিং হচ্ছে এক ধরণের সৃজনশীলতা। গবেষণার ক্ষেত্রেও এই সৃজনশীলতার প্রয়োজন রয়েছে। তিনি ফার্মেসি বিভাগের ছাত্রদেও ভূয়সী প্রশংসা করেন। ফার্মেসি বিভাগ থেকে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক গবেষণাপত্র বিশ্বেও বিভিন্ন প্রসিদ্ধ সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ