ঢাকা, মঙ্গলবার 24 January 2017, ১১ মাঘ ১৪২৩, ২৫ রবিউস সানি ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

আ.লীগ রাষ্ট্রপতির উদ্যোগকে বিতর্কিত করছে

শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৮১তম জন্মদিন উপলক্ষে গতকাল সোমবার সুপ্রিম কোর্ট বার অডিটোরিয়ামে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : আওয়ামী লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতারা বিভিন্ন জায়গায় মনগড়া ভিন্ন ভিন্ন বক্তব্য দিয়ে রাষ্ট্রপতির উদ্যোগকে বিতর্কিত করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম কর্তৃক আয়োজিত জিয়াউর রহমানের ৮১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

ফোরাম সভাপতি জয়নুল আবেদিনের সভাপতিত্বে এসময় আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার আমিনুল ইসলাম, মোহাম্মাদ আলী, ব্যারিস্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন, ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল, তৈমুর আলম খন্দকার, ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, আবেদ রাজা, খালেদা পান্না, মনির হোসেন, মতিলাল বেপারী প্রমুখ।

মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপি একটি ইনক্লুসিভ গণতন্ত্র, নির্বাচন এবং রাজনীতি চায় যেখানে সকলে অংশগ্রহণ করবে। রোববার সংসদে রাষ্ট্রপতিও বলেছেন, গণতন্ত্র সকলকে নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যাবে। আমরাও চাই সকলকে সাথে নিয়ে এগুতে। কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকার এমন চায় না। তারা জানে নির্বাচন দিলে জয়ী হবে না। তাদের নেতারা যে বক্তব্য দিচ্ছে তা গ্রহণযোগ্য নয়। তাদের ভিন্ন ভিন্ন বক্তব্য রাষ্ট্রপতির উদ্যোগকেও বিতর্কিত করছে। তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় আসার জন্য লড়াই করছে না। জনগণের অধিকার, দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রাম করছে।

আওয়ামী লীগ রাষ্ট্রপতিকেও বিতর্কিত করতে চায় মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠায় সকলের কাছে একটি গ্রহণযোগ্য ও নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রস্তাব দিয়েছেন অথচ আওয়ামী লীগ সেই প্রস্তাবকে ভুল ব্যাখ্যা করেছেন। তারপরও রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ জানাই তিনি সেই প্রস্তাবে সাড়া দিয়ে সকল রাজনৈতিক দলকে ডেকেছেন।

জিয়াউর রহমানের কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, দেশের জন্য জিয়াউর রহমান যে অর্জন রেখে গিয়েছিলেন তা হারাতে বসেছি। আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের ওপর চেপে বসেছে। গণতন্ত্রকে হত্যা করে বাকশালী শাসন কায়েম করতে চায়। জিয়াউর রহমানের আদর্শ ধারণ করে খালেদা জিয়ার দেখানো পথে সকল নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, কখনও হতাশ হবেন না। বুকে বল নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। বিজয় অর্জন করতে হবে। বিএনপি ক্ষমতায় যেতে লড়াই করছে না। বিএনপি লড়াই করছে বাংলাদেশের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে। তাই আসুন বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও স্বার্বভৌমত্বকে অক্ষুণœ রাখার জন্য খালেদা জিয়ার হাত কে আরো শক্তিশালী করি। বিজয় অর্জন করি।

ফুলেল শুভেচ্ছা : গতকাল দুপুরে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা-জাসাস-ঢাকা মহানগর শাখার আহ্বায়ক কমিটির পক্ষ থেকে মীর ছানাউল হক এর নেতৃত্বে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন-জাসাস জাতীয় নির্বাহী কমিটির নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক চিত্র নায়ক হেলাল খান, সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম রিপন, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন রোকন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হান্নান মাসুম, মাকসুদুর রহমান টিপু, রফিকুল ইসলাম স্বপন, ঢাকা মহানগর জাসাস এর যুগ্ম আহ্বায়ক নাহিদ উল্লাহ চৌধুরী, আশরাফুল ইসলাম দিপু, জাহাঙ্গীর আলম রনি, আব্দুল হালিম খোকন, মশিউর রহমান মুন্সী, আমির হোসেন বাবু, মো: সাজ্জাদ হোসেন সাজ্জু, মিজানুর রহমান ভান্ডারী, আহসান হাবিব, আব্দুল মালেক সাগর, শেখ মো: আরিফুর রহমান এবং সদস্য আনোয়ার হোসেন আনু ও হারুনুর রশীদসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। শুভেচ্ছা প্রদান অনুষ্ঠানে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জাসাস ঢাকা মহানগরের নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। এছাড়া মুন্সিগঞ্জ জাসাস-এর পক্ষ থেকে সভাপতি হাসান জাহাঙ্গীর-এর নেতৃত্বে জাসাস জাতীয় নির্বাহী কমিটির নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক হেলাল খানকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। ফুলেল শুভেচ্ছা প্রদান অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-মুন্সিগঞ্জ জেলা জাসাস-এর নেতা বিউটি আক্তার টিশা, আব্দুর রব বেপারী, মো: রিপন মিয়া, আরিফ হোসেন, মিলন মিয়া ও শহীদুল ইসলামসহ সর্বস্তরের নেতৃবৃন্দ।

নিন্দা ও প্রতিবাদ : পটুয়াখালী জেলাধীন দুমকি থানার মুরাদিয়া ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মজিবর রহমান ভূঁইয়াকে আওয়ামী সন্ত্রাসী কর্তৃক ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলার পর তার মৃত্যুর ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গতকাল এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, বর্তমান শাসকগোষ্ঠী বিরোধী দল ও মত দমনে এখন এতো বেশী মাত্রায় বেপরোয়া হয়ে উঠেছে যে, দেশের নাগরিকদের মনে সবসময় একধরনের ভীতি ও আতঙ্ক বিরাজ করছে। বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করতে নেতা-কর্মীদের অপহরণ, গুম, খুন, মিথ্যা মামলা দায়ের এবং রিমান্ডে নিয়ে অমানবিক নির্যাতন চালানো হচ্ছে। বিএনপি মহাসচিব আক্ষেপের সঙ্গে বলেন, গোটা দেশটাকেই বর্তমান ক্ষমতাসীন গোষ্ঠী একটা নরকপুরীতে পরিণত করেছে। তিনি অবিলম্বে মজিবর রহমান ভূঁইয়াকে হত্যাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানান। একইসাথে মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যবর্গ ও আত্মীয়স্বজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ